default-image

২৯ লাখ রুপি। অর্থাৎ বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩৩ লাখ ৭৬ হাজার টাকা নিয়েছিলেন সানি লিওনি। শিয়াস নামের ভারতের কেরালার একজন ইভেন্ট ম্যানেজারের কাছ থেকে দুটো অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার জন্য এই অর্থ নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু অংশ নেননি সেই অনুষ্ঠানে। তাই এই বলিউড তারকার বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা ঠুকেছে সেই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি।

তারই সূত্র ধরে ৪ ফেব্রুয়ারি কেরালার ত্রিরুভানানথাপুরামের একটি ব্যক্তিগত রিসোর্টে সানির বক্তব্য রেকর্ড করেছে পুলিশ। সেখানেই রিয়েলিটি শো ‘স্প্লিটসভিলা’র শুটিং করছিলেন সানি। তবে সানি কী বলেছেন, তা কিছুই জানায়নি পুলিশ। আইএএনএস, টাইমস অব ইন্ডিয়া, হিন্দুস্তান টাইমসসহ একাধিক ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই খবর নিশ্চিত করেছে।

default-image
বিজ্ঞাপন

অভিযোগকারী প্রথমে রাজ্য পুলিশের সাধারণ শাখায় অভিযোগ করেন ‘রাগিনী এমএমএস টু’, ‘জিসম টু’খ্যাত এই তারকার বিরুদ্ধে। তারপর সেটা পাঠিয়ে দেওয়া হয় অপরাধ দমন শাখায়।

default-image

অভিযোগপত্রে লেখা হয়েছিল, সানি লিওনি ২৯ লাখ রুপি নিয়েছেন। সে জন্য যে দুটি অনুষ্ঠানে যাওয়ার কথা হয়েছিল, তার একটিতেও উপস্থিত হননি। অগ্রিম নেওয়া অর্থ ফেরতও দেননি। তাই বাধ্য হয়েই শিয়াস প্রতারণার মামলা করেছেন। যদিও পুলিশ সানির বিবৃতি নিয়ে কিছুই বলেননি। তবে আইএএনএস জানিয়েছে, সানি স্বীকার করেছেন যে তিনি টাকাগুলো নিয়েছেন। তবে তিনি জানিয়েছেন, ইচ্ছা করে প্রতারণা করেননি। অনুষ্ঠানে যাওয়ার আর সময় করে উঠতে পারেননি তিনি। সে জন্য দুঃখ প্রকাশও করেছেন সানি। আর ইভেন্টের জন্য নেওয়া অর্থ তিনি ফিরিয়ে দেবেন বলেও জানিয়েছেন।

একসময় ‘বিগ বস’ রিয়েলিটি শোতে প্রতিযোগী হিসেবে দেখা দিয়েছিলেন সানি। সম্প্রতি তিনি সেখানে মঞ্চ ভাগ করেছেন সালমান খানের সঙ্গে। সালমানের সিনেমার গানে গলা মিলিয়েছেন আর নেচেছেন। এবার দেখা দেবেন ‘স্প্লিটসভিলা এক্সথ্রিতে’, রণবিজয় সিংয়ের সঙ্গে। ৬ মার্চ থেকে শুরু হতে চলেছে এই অনুষ্ঠান। ‘অনামিকা’ ওয়েব সিরিজেও দেখা দিতে চলেছেন তিনি।

default-image

আমেরিকা আর কানাডা, এ দুই দেশের নাগরিকত্ব রয়েছে সানির। বলিউডে থিতু হয়েছেন ‘পর্নো তারকা’ থেকে অভিনয়শিল্পী হতে। ‘জিসম টু’ দিয়ে ২০১২ সালে যাত্রা শুরু করেছিলেন। এরপর অভিনয় করেছেন ‘রাগিনি এমএমএস টু’ ও ‘হেট স্টোরি টু’ সিনেমায়।

বিজ্ঞাপন
হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন