বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

‘এটারনালস’ ছবির শুটিংয়ের সময় জোলির সঙ্গে সালমার বন্ধুত্ব গভীর হয়। সেই সূত্রে সালমার জন্মদিনে মেয়ে জাহারাকে নিয়ে চলে গিয়েছিলেন তিনি। সম্প্রতি এক টক শোতে এসে সেদিনের ঘটনার বর্ণনা দিলেন মেক্সিকান অভিনেত্রী সালমা হায়েক। তিনি বলেন, ‘অ্যাঞ্জির জন্য এ এক নতুন অভিজ্ঞতা। আমরা যখন কাণ্ডটা করলাম, দেখে সে রীতিমতো হতবাক। মোমবাতি নেভানোর সঙ্গে সঙ্গে সবাই যখন “মর্ডিটা” “মর্ডিটা“ (কেকে কামড় দাও) বলে সমস্বরে চ্যাঁচাচ্ছিল, অ্যাঞ্জি তো অবাক। পরে আমি আর আমার ভাই মিলে তাঁকে বুঝিয়ে দিলাম কী করতে হবে। যেহেতু সে–ই আমার সবচেয়ে কাছে ছিল, সে আমার মাথাটা কেকের ভেতরে ঠেসে দিল।’

default-image

মেক্সিকোতে জন্মদিন উদ্‌যাপনের এ এক মজার রীতি। যাঁর জন্মদিন, তাঁর মুখ মুহূর্তের জন্য ঠেসে ধরা হয় কেকের ভেতরে। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে এক কামড়ে এক টুকরো কেক খেয়ে নিতে হয়। সালমা বলেন, ‘কাজটা করে একটু ঘাবড়ে গিয়েছিল জোলি। ভাবছিল এই বুঝি একটা ঝগড়া বেধে যায়। খুব লজ্জাও পেয়েছিল, তবে তাঁকে দেখে মনে হচ্ছিল কাণ্ডটা করে সে নিজেও মজা পেয়েছে। কারণ, একটু জোরেই আমার মাথাটা সে কেকের ভেতর ঠেসে দিয়েছিল।’ সালমা বলেন, ‘আমি তাঁকে বললাম, ব্যাপার না, তোমার জন্মদিন আসছে। আমরা মেক্সিকান রীতিতে সেটা উদ্‌যাপন করব।’

হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন