default-image

২০১৯ সালে বিশ্ব চলচ্চিত্রে তোলপাড় করা সিনেমার নাম জোকার। ঝুলিভরা প্রশংসা, সমালোচনা, বিতর্ক আর পুরস্কার নিয়ে সারা বছর আলোচনায় ছিল ছবিটি। ৫০০ কোটি টাকা খরচ করে বানানো একটা ছবি বক্স অফিসে কত টাকা তুলে আনতে পারে? কল্পনার লাগাম ছেড়ে দিলেও হয়তো আন্দাজ করা যায় না। জোকার–এর আয় ছাড়িয়েছে সাড়ে ৯ হাজার কোটি টাকা। যদিও চলচ্চিত্রের বড় বাজার চীনসহ বেশ কয়েকটি দেশে ছবিটি ঢুকতেই দেওয়া হয়নি। এবার জোকার নিষিদ্ধ হলো ভারতের ছোট পর্দায়। টেলিভিশনে কিছুতেই ছবিটি দেখানোর অনুমতি মিলল না।

বিজ্ঞাপন

ভারতের বড় পর্দায় মুক্তির জন্য ছবিটিকে ‘ইউ’ সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ ১৮ বছরের কম বয়সীদের ছবিটি দেখার অনুমতি নেই। কিন্তু টেলিভিশনে দেখানোর জন্য অনুমতি মেলেনি। ‘ভায়োলেন্স’ আছে এমন ৫৮টি দৃশ্য ছেঁটে ফেলে পুনরায় ছবিটি জমা দেওয়া হয়েছিল সেন্সর সার্টিফিকেটের জন্য। কিন্তু ফল বদলায়নি। টুইটারে এ কথা শেয়ার করেছেন ভারতীয় সাংবাদিক উৎকর্ষ আনন্দ। সেখানে বলা হয়েছে, ‘৫৮টি দৃশ্য কেটে ফেলার পরও এই সিনেমা শিশুমনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। ছবির অ্যান্টিহিরো (জোকার) যেভাবে হিংসাকে গৌরবান্বিত করে তুলেছে, তা ১৮ বছরের কম বয়সীদের মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য হুমকি। এই ছবি তাদের রক্তপাতের দিকে ঠেলে দিতে পারে। তাই সিদ্ধান্ত অপরিবর্তিত আছে। টেলিভিশনে ছবিটি দেখানো যাবে না।’

default-image

তবে এ সিদ্ধান্ত অনেকেরই ভালো লাগেনি। এক জোকারভক্ত লিখেছেন, ‘কেন? বলিউডের অ্যাকশন সিনেমায় আর দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমায় কি সহিংসতা দেখানো হয় না? সারা দিন সেগুলোই চলছে টিভিতে।’

কেবল বাণিজ্যিকভাবেই নয়, আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির ক্ষেত্রেও এগিয়ে জোকার। টড ফিলিপস পরিচালিত জোকার ঘরে এনেছে গোল্ডেন গ্লোব ও বাফটা পুরস্কার। এ ছাড়া ৯২তম অস্কারে সেরা সিনেমা, সেরা পরিচালকসহ ১১টি বিভাগে পেয়েছে মনোনয়ন। সেরা অভিনেতার অস্কার উঠেছে জোকার চরিত্রের অভিনেতা হোয়াকিন ফিনিক্সের হাতে। সেরা অরিজিনাল স্কোর বিভাগেও অস্কার জিতেছে ছবিটি।

default-image
বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0