default-image

২৫ বছর বয়সী মার্কিন সুপার মডেল জিজি হাদিদর নামের আগে ‘মা’ বিশেষণ যুক্ত হয়েছে চার মাসও হয়নি। এর মধ্যেই পুরোপুরি ‘ফিট’ হয়ে কাজে ফিরেছেন তিনি। একটি ব্র্যান্ডের পণ্যদূত হিসেবে অংশ নিয়েছেন ফটোশুটে। গর্ভাবস্থা আর সন্তান জন্মের আগমুহূর্ত নিয়ে কথা বলেছেন পিপল সাময়িকীর সঙ্গে। মা হওয়ার পর এটিই তাঁর প্রথম সাক্ষাৎকার।
জিজি জানান, প্যারিস ফ্যাশন উইকের টম হার্ডি শোর আগের দিন জিজি জানতে পারেন তিনি গর্ভবতী। তাঁর প্রথম অনুভূতি ছিল ক্ষুধা।

বিজ্ঞাপন

জিজি বলেন, ‘পরের দিনই আমার বছরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শো। সেটা নিয়ে এমনিতেই আমি নার্ভাস ছিলাম। তার ওপর জানলাম, আমার আর জায়ানের (ব্রিটিশ সংগীত তারকা জায়ান মালিক) সন্তান আমার পেটে। সব মিলিয়ে আমার প্রচণ্ড খিদে পেল। আমি বুঝতে পারছিলাম না কী করব। পরদিন ব্যাক স্টেজে আমি ক্রমাগত খেয়েছি। তারপর হেঁটেছি। তারপর আবার খেয়েছি। যদি পারতাম, তাহলে আমি র‍্যাম্পের মঞ্চেও হাঁটতে হাঁটতে মিউজিকের তালে তালে খেতাম। এটাই সম্ভবত এখন পর্যন্ত আমার জীবনের কঠিনতম মুহূর্ত ছিল। এর আগে আমি কখনোই এতটা নার্ভাস হয়ে পড়িনি। জীবনে প্রথমবার ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর সময়ও না।’

default-image

চার মাসেও জিজি আর জায়ানের সন্তানের ছবি আসেনি গণমাধ্যমে। হাতের ছবি দিয়ে জানিয়েছিলেন সন্তান আগমনের সুখবর। তারপর কয়েকবার জিজি আর জায়ানের কোলে দেখা গেছে তাঁদের সন্তানকে। তবে কখনোই বাচ্চার মুখ দেখাননি তাঁরা।

default-image

চার মাসের সন্তানকে চুমু খাচ্ছেন, এমন একটি ছবি পোস্ট করে জিজি লিখেছেন, ‘দেখতে দেখতে চার মাস হয়ে গেল। বিশ্বের সেরা বাবু আমার মেয়ে, খাই (খাই হাদিদ জায়ান)।’
বিরতি ভেঙে কাজে ফেরার ঘোষণাও দিয়েছেন ইনস্টাগ্রামের মাই ডেতে। নিজের একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘৯টা থেকে ৫টা কাজ শুরু হলো। ফিরলাম, আমি ফিরলাম।’

বিজ্ঞাপন
হলিউড থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন