default-image

করোনার আগে রায়হান রাফির ‘স্বপ্নবাজী’ সিনেমার শুটিং দিয়ে চলচ্চিত্রে হাতেখড়ি হয়েছে প্রিয়ন্তীর। একসময় চাইতেন নিয়মিত সিনেমাটাই করে যাবেন। হঠাৎই করোনার কারণে সিনেমাটির শুটিং বন্ধ হয়ে যায়। এখন নিয়মিত নাটক ও ওয়েব ফিল্মে অভিনয় করছেন। ভালোবাসা দিবসে মনোজের সঙ্গে ‘শ্যামল ছায়া’, ‘বিশেষ অতিথি’সহ তিনটি নাটক মুক্তি পেয়েছে। এই অভিনেত্রী জানালেন, তাঁদের প্রথম পরিচয়ের গল্পটাও মজার। প্রিয়ন্তী বলেন, ‘দু–তিন বছর আগে। তখন আমি মাত্র অভিনয় শুরু করেছি। হঠাৎ একদিন দেখলাম, রাস্তায় একটি ছোট বিড়াল পড়ে রয়েছে। ডাকছে। আমি বিড়ালটিকে বাসায় নিয়ে আসি। পরে ফেসবুকে পোস্ট দিই কেউ বিড়ালটিকে নিতে চান কি না, জানার জন্য। কারণ, আমার বাসায় অনেক বিড়াল থাকায় রাখতে পারছিলাম না। তখন ফেসবুকের মেসেঞ্জারে নক দিয়ে বিড়ালটি নেওয়ার কথা জানায় মনোজ। বিড়াল কী খায়, কীভাবে যত্ন নিতে হয়, এসব কথাবার্তা বলতে গিয়েই আমাদের ভালো বন্ধুত্ব হয়।’

default-image

ছবিটি নিয়ে বিব্রত হতে হচ্ছে মনোজকেও। সবার একই প্রশ্ন, চুপিসারে বিয়ে করলেন নাকি? হঠাৎ একসঙ্গে ফেসবুকে ছবি পোস্ট করা প্রসঙ্গে মনোজ বলেন, ‘আমরা আসলে একটি অডিশনে গিয়েছিলাম। একসঙ্গে আমাদের দেখতে কেমন লাগে, সেটা দেখার জন্য প্রোডাকশন হাউস থেকে ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করতে বলেন। তাদের উদ্দেশ্য ছিল দর্শক রিঅ্যাকশন কেমন আসে। এখন সবাই ফোন দিয়ে অন্য কিছু মনে করছে। আমার প্রশ্ন, বিয়ে যদি করিই, তাহলে ধুমধাম করেই করব। ফেসবুকে ছবি দিয়ে কেন করব।’ এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘সুন্দর একটি বিড়ালকে কেন্দ্র করেই আমাদের পরিচয়। সেই বিড়াল এখনো রয়েছে। তার নাম বাঘা। আমরা তার মা–বাবা। বিড়ালকে কেন্দ্র করেই আমরা ভালো বন্ধু ও সহকর্মী। এর বেশি কিছু নই।’

default-image

সম্প্রতি মনোজ প্রামাণিক অভিনীত ‘রেডরাম’ মুক্তি পেয়েছে ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম চরকিতে। ‘রেডরাম’–এ আরও অভিনয় করেছেন আফরান নিশো ও মেহজাবীন চৌধুরী। পরিচালনা করেছেন ভিকি জাহেদ। মনোজ জানালেন, রেডরাম তাঁর পছন্দের চরিত্র। প্রত্যাশার চেয়েও বেশি সাড়া পাচ্ছেন।’

ওটিটি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন