default-image

চার মাস আগে বিয়ের কথা ছিল গায়িকা জাকিয়া সুলতানা কর্নিয়ার। সবকিছু ঠিকঠাকও ছিল। হঠাৎ করেই আসে করোনা মহামারি। তবে শেষ পর্যন্ত করোনাকে পরোয়া করেননি দুই শিল্পী। গতকাল সোমবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় কর্নিয়াদের বাসায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রথম আলোকে বিয়ের সেই আয়োজনের বিস্তারিত জানান কর্নিয়া।

কত বছরের প্রেম? জানতে চাইলে কর্নিয়া বলেন, ‘প্রেম বললে ভুল হবে। আমরা দুজন দুজনকে পছন্দ করতাম। তিন বছর ধরে আমরা পরস্পরের নিকটবর্তী হয়েছি।’ পছন্দের মানুষকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পাওয়ার অনুভূতি কেমন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যাকে পছন্দ করেছি, তাঁকেই জীবনসঙ্গী হিসেবে পেয়েছি—এ যেন সৃষ্টিকর্তার দেওয়া উপহার। যদিও সংসার শুরু করতে পারিনি, শ্বশুরবাড়ি যাওয়া হয়নি। তবে লকডাউন শেষ হলেই আমাদের সংসার শুরু হবে।’

default-image

কথা ছিল ২৭ মার্চ বিয়ে ও আক্দ হবে কর্নিয়া ও নাবিলের। শিডিউল অনুযায়ী ১ এপ্রিল ছিল বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে লকডাউন শুরু হয়ে গেলে বিয়ের যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা বাতিল করতে হয়। অবশেষে চার মাস অপেক্ষা শেষে গতকাল বিয়ে করেন তাঁরা।

কর্নিয়া ও নাবিল অনেক বছর ধরে একসঙ্গে গান করেন। সে সময় তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। চার বছর হলো নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া করে নেন তাঁরা। লকডাউনের আগে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয় দুই পরিবার। নাবিলের পরিবার থেকে কর্নিয়ার বাসায় বিয়ের প্রস্তাব যায়।

পাওয়ার ভয়েস প্রতিযোগিতা থেকে কর্নিয়া উঠে আসেন। এরপর নিয়মিত গান প্রকাশ ও মঞ্চ মাতিয়ে চলেছেন। আর নাবিলের ক্যারিয়ার শুরু হয় সাবকনসাস ব্যান্ডে। তিনি এসএস ব্যান্ডের প্রতিষ্ঠাতাও। কাজ করেছেন আর্ক, প্রমিথিউসের মতো ব্যান্ডে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0