অনুষ্ঠানে কুশল বিনিময়ের পর খুনসুটির মধ্যে উপস্থাপক পূর্ণিমা তাঁর অতিথি ইমরানের কাছে জানতে চান, তাঁর বেশ কিছু গান কোটি ভিউ হয়েছে। এর রহস্য কী? ইমরান বলেন, ‘এটা দর্শকদের ভালোবাসা। দর্শকদের ভালোবাসার কারণেই কোটি ভিউ হয়েছে গানগুলো। ২০১৫ সালে আমার “চলতে চলতে বলতে বলতে” গানটি দেশের মধ্যে প্রথম কোটি ভিউ হয়েছিল। কলকাতা ও বাংলাদেশে মিলে আমার ওই গানটি ১০ মিলিয়ন ভিউ হয়েছে। এরপর আমার ৪৭টি গান কোটির ওপরে ভিউ হয়েছে।’ কথা প্রসঙ্গে ইমরান জানালেন, তাঁর বসগিরি সিনেমার ‘দিল দিল দিল’ গানের সবচেয়ে বেশি ভিউ। এই গানে এ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে নয় কোটি ভিউ হয়েছে।

সবাই জীবনে কাউকে না–কাউকে অনুসরণ করে। ইমরান জীবনে কাকে অনুসরণ করে? ইমরানের কাছে জানতে চান পূর্ণিমা। ‘আমি ছোটবেলায় যাঁদের গান শুনে বড় হয়েছি। তাঁদের গান এখনো শুনি, তাঁদের কাছ থেকে আমি প্রতিনিয়ত শিখি। আমি ছোট সময় শুনেছি মাহমুদুন্নবী স্যার, সুবীর নন্দী স্যার, কুমার বিশ্বজিৎ দাদা এবং সারা জীবন যাকে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসি অ্যান্ড্রু কিশোর দাদা। তিনি বাংলাদেশের প্লেব্যাক সম্রাট। তাঁর মতো এত সুন্দর কণ্ঠ বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত আসে নাই। আমি এদের শুনে বড় হয়েছি। বর্তমানে আমি শুনি হাবিব ভাই, বাপ্পা দাসহ সবার গান শুনি। এদেরকেই আমি অনুসরণ অনুকরণ করি।’

হাবিব ভাইয়ের কম্পোজিশন আমার খুবই ভালো লাগে। বাপ্পা দার গানের কথা ও সুর অসাধারণ। আমার স্কুল-কলেজ জীবনে আমি দাদার গান শুনে বড় হয়েছি। এ রকম আরও অনেকে আছেন।

ইমরান জানালেন সমকালীন শিল্পীদের মধ্যে হাবিব তাঁর সব সময়ের অনুপ্রেরণা। তিনি বলেন, ‘তাঁর সঙ্গে কাজ করার সৌভাগ্য হয়েছে। হাবিব ভাইয়ের কম্পোজিশন আমার খুবই ভালো লাগে। বাপ্পা দার গানের কথা ও সুর অসাধারণ। আমার স্কুল-কলেজ জীবনে আমি দাদার গান শুনে বড় হয়েছি। এ রকম আরও অনেকে আছেন। প্রত্যেকের কাজের ধরন আলাদা। কাউকে বলা যাবে না উনিই সেরা। এককভাবে বলব না একেই আমার বেশি ভালো লাগে। সবার কাজই আমার ভালো লাগে।’ কার কাজ তাহলে খারাপ লাগে? হুট করে পূর্ণিমার প্রশ্ন। ইমরানও সচেতনভাবে উত্তর দেন, ‘যারা কাজ করছে, তাদের কারও কাজেই খারাপ লাগে না।’ এবার পূর্ণিমা জানতে চান, ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে সারা দিন কয়টা ছবি আপলোড করে ইমরান? ইমরান উত্তরে বলেন, ‘এটা আমার অ্যাডমিনরা করে। তবে সারা দিন তিনটার বেশি ছবি আপলোড করা হয় না। টাইমিং সেট করা আছে। সকালে বিকেলে রাতে এভাবেই আপ করা হয়। একটু দিতে হয়। না হলে তো দর্শকদের সঙ্গে যোগাযোগ কমে যায়।’ অনুষ্ঠানের একপর্যায়ে ইমরানের কাছে তাঁর সবচেয়ে পছন্দের গানটি শোনাতে আবদার করেন পূর্ণিমা। ইমরান গাইলেন ‘আয়নাতে ওই মুখ দেখবে যখন’।

দেশের সীমানা পেরিয়ে ভিন দেশে নিজেদের দ্যুতি ছড়িয়েছেন বা ছড়াচ্ছেন বাংলাদেশের যেসব তারকা, তাঁদের নিয়েই প্রথম আলোর আয়োজন ‘বড় মঞ্চের তারকা’। হাতিল নিবেদিত এ অনুষ্ঠান প্রথম আলোর অনলাইন, ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে দেখা যাচ্ছে। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করছেন দিলারা হানিফ পূর্ণিমা।