বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সে একজন অসাধারণ স্বামী ও বাবা ছিলেন।’ দ্য ওয়ান্টেড আরও জানায়, ‘সে আমাদের ভাই ছিল। তাকে হারানোর অনুভূতি শব্দ দ্বারা বাখ্যা করা সম্ভব না আমাদের। টম আজীবন আমাদের মধ্যে বেঁচে থাকবে।’

default-image

টম পার্কারের স্ত্রী কেলসি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘টম আমাদের পৃথিবীর কেন্দ্র ছিল। সে চলে গেছে পুরো পরিবারকে ছেড়ে। তাঁকে ছাড়া, তাঁর হাসি ছাড়া, প্রাণবন্ত উপস্থিতি ছাড়া জীবন কীভাবে চলবে, তা ভাবতে পারছি না।’

দ্য ওয়ান্টেড ব্যান্ড তৈরি হয়েছিল ২০০৯ সালে। দ্য ওয়ান্টেড সংগীতপ্রেমীদের উপহার দিয়েছে ‘অল টাইম লো’, ‘গ্ল্যাড ইউ কেম’-এর মতো সুপারহিট গান। কিন্তু দ্য ওয়ান্টেডভেঙে যায় ২০১৪ সালে। ২০২১ সালে তাঁরা আবার একত্রিত হন এবং লন্ডনে বিখ্যাত রয়্যাল অ্যালবার্ট হলে কনসার্ট করেন তাঁরা।

সেই কনসার্ট টম পার্কার বলেছিলেন, ‘এমন নয় আমি ক্যানসারকে পাত্তা দিচ্ছি না, তবে শুধু ক্যানসারের কথা ভাবলে জীবন আরও তাড়াতাড়ি ফুরিয়ে যাবে, আমি সেটা চাই না।’

default-image

টম পার্কারের ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে ২০২০ সালের অক্টোবরে। এর পর থেকে তাঁর চিকিৎসা শুরু হলেও মরণব্যাধি রোগের সঙ্গে যুদ্ধ করে জিততে পারেননি তিনি।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন