default-image

পয়লা ফাল্গুন আর ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে শহরে আয়োজন করা হচ্ছে নানা ধরনের অনুষ্ঠান। এসবের ভিড়ে খুব ভিন্ন একটি আয়োজনের নাম ‘মাটির মেলা’। এ মেলায় পণ্য কেনাবেচা নয়, মূল আকর্ষণ গান, পুতুলনাচ আর ভিন্নধর্মী কিছু কর্মশালা। আগামীকাল থেকে ‘মাটির মেলা’ শুরু হবে। শেষ হবে ১৪ ফেব্রুয়ারি।
‘মাটির মেলা’র আয়োজন করছে কারু ও হস্তশিল্প প্রতিষ্ঠান যাত্রা। এর বনানী শাখায় বসছে মেলা। মেলার উদ্দেশ্য নিয়ে ‘যাত্রা’র প্রতিষ্ঠাতা আনুশেহ আনাদিল বলেন, ‘সুন্দরবনে ঘটে যাওয়া বিপর্যয়কে মাথায় রেখেই আমরা এ মেলার আয়োজন করেছি। সেখান থেকে তুলে আনা কিছু ছবি নিয়ে মেলায় আয়োজন করা হচ্ছে আলোকচিত্র প্রদর্শনী। এ ছবিগুলো দেখলেই সবাই বুঝতে পারবে, কেন আমরা মাটির মেলার আয়োজন করলাম।’
মাটির মেলার শুরুর দিন বিকেল চারটায় থাকবে পুতুলনাচ ‘জলপুতুল’। ওই দিন সন্ধ্যায় মেলায় গাইবে গানের দল ‘ধারক’ এবং বাউল শফি মণ্ডল। ১৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ছয়টা থেকে গাইবেন অর্ণব, সজীব ও আরও অনেকে। মেলার শেষ দিন থাকবে গানের দল ‘জলের গান’র পরিবেশনা। মেলার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসেবে থাকবে কয়েকটি কর্মশালা। আনুশেহ জানান, রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে তৈরি পণ্যের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে তাঁরা কিছু কর্মশালার আয়োজন করেছেন। এসব কর্মশালায় শেখানো হবে প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে কীভাবে ঘরেই সাবান, শ্যাম্পু, তেলসহ মেকআপের বিভিন্ন সরঞ্জাম তৈরি করা যাবে।

বিজ্ঞাপন
গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন