বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রভা বলেন, ‘ইমরান ও আমি খুব ভালো বন্ধু। একসঙ্গে আড্ডা দিই। এ রকম আড্ডায় গুনগুন করে গান গাইবার স্বভাব আমার। একদিন আমার গান শুনে ইমরান বলল, চল দোস্ত, তোর গান রেকর্ড করি। এভাবেই গানটিতে কণ্ঠ দেওয়া।’

default-image


২২ অক্টোবর গানটির ভিডিও চিত্র প্রভার ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে। কক্সবাজারের সমুদ্রসৈকতে গানটির ভিডিও ধারণ করা হয়েছে। গানটিতে মডেলও হয়েছেন প্রভা।

এই অভিনয়শিল্পী জানান, মায়ের ইচ্ছা পূরণ করতেই গানটি গেয়েছেন তিনি। অভিনয়ে পরিচিতি পেলেও মায়ের ইচ্ছা ছিল সংগীতশিল্পী হিসেবে পরিচিতি পাক। কিন্তু মেয়ের গানে খুব একটা মন টানত না।

default-image

প্র্যাকটিসে বসে ফাঁকি দিতেন, অনুষ্ঠানে গানের চেয়ে উপস্থাপনা করতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতেন। মাকে খুশি করতে এবার কণ্ঠে গান তুলে নিলেন তিনি। প্রভা আরও বলেন, ‘গানটি রেকর্ড করার পর আম্মু শুনে খুশি হয়ে বাবাকেও শুনিয়েছেন। বিষয়টা আমার খুব ভালো লেগেছে।’

প্রভা জানান, এটা পরীক্ষামূলক। কেবল নিজেকে যাচাই করার জন্য করা। স্টুডিওতে প্রথমবার গাইলেন, কেমন লেগেছে?

default-image

‘স্টুডিওতে গিয়ে অন্যান্য ইনস্ট্রুমেন্টের সামনে দাঁড়িয়ে গাইতে নার্ভাস লাগছে। আমার মনে হয়, গানের ব্যাপারটা পুরোপুরি গড গিফটেড ব্যাপার। আগে মনে হতো, এক দিনে বুঝি অনেক গান রেকর্ড করে ফেলা যায়। কিন্তু মাইক্রোফোনের সামনে দাঁড়িয়ে আমার সব ধারণা ভুল প্রমাণিত হয়েছে। তবে ইমরান ছাড়া অন্য কেউ রেকর্ড করলে ধৈর্য হারিয়ে ফেলত। বন্ধু হওয়ায় বেস্ট উপায়ে আমার গানটা রেকর্ড করিয়ে নিয়েছে।’

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন