default-image

করোনা মহামারির কারণে প্রায় এক বছর ঘরবন্দী ছিলেন নগর বাউল জেমস। এক বছর পর আবার কনসার্টে গান করেন তিনি। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার ২৬ মার্চ গান করতে মঞ্চে ওঠার কথা ছিল জেমসের। কিন্তু গাজীপুরে করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় আকস্মিকভাবে কনসার্টটি বাতিল করা হয়েছে। কিছুক্ষণ আগে জেমসের মুখপাত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার স্বাধীনতা দিবসের বিকেলে গাজীপুর রাজবাড়ি মাঠে ছিল কনসার্ট। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের আয়োজনে মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের তত্ত্বাবধানে কনসার্টের সমন্বয়কের দায়িত্বে ছিলেন উপস্থাপক ও নির্মাতা আনজাম মাসুদ। তিনি জানান, দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে বেলা তিনটার সাংস্কৃতিক পর্বে ছিল কনসার্ট। সেখানেই গান করার কথা ছিল জেমসের। কিন্তু সারা দেশে করোনা পরিস্থিতির অবনতির কারণে সরকার বড় ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ করেছে। কিছুক্ষণ আগে অনুষ্ঠানস্থল থেকে আনজাম মাসুদ বলেন, ‘সব আয়োজন সম্পন্ন হয়েছিল। সাউন্ড সিস্টেম, মঞ্চ, দর্শক আসন থেকে শুরু করে লাইটের ব্যবস্থা করা শেষ। সিটি করপোরেশন সরকারের নির্দেশ মোতাবেক কনসার্টটি বাতিল করতে নির্দেশ দিয়েছে।’ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের অংশ হিসেবে এ আয়োজন করে গাজীপুর সিটি করপোরেশন। একই মঞ্চে ছিল জেলা প্রশাসনের আরেকটি আয়োজন।

বিজ্ঞাপন
default-image

করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর গত বছরের মার্চ থেকে অন্য সবার মতোই ঘরে কাটিয়েছেন দেশের প্রখ্যাত ব্যান্ড সংগীত তারকা মাহফুজ আনাম জেমস। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে অনুষ্ঠান করার অনুমতি থাকলেও সংক্রমণের ঝুঁকি থাকায় কনসার্টে খুব একটা দেখা যায়নি তাঁকে। প্রায় এক বছর পর কনসার্টে অংশ নিতে শুরু করেছিলেন তিনি। এরই ধারাবাহিকতায় স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে গাজীপুরের কনসার্টে অংশ নেওয়ার কথা ছিল তাঁর, সঙ্গে ড্রামার আহসান এলাহি ফান্টি, গিটারিস্ট সুলতান রায়হান খান, বেজ গিটারিস্ট তালুকদার সাব্বির, কি–বোর্ডিস্ট কাকন চক্রবর্তী এবং ব্যবস্থাপক রুবাইয়াত ঠাকুর।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন