বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আপনাদের সম্পর্ক ভালো। দীর্ঘদিনের পরিচয়। নকীব খানের সুরে আগেও গান করেছেন। তাহলে এত দীর্ঘ বিরতি কেন? কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘কেন যেন করা হয়নি। সবাই কাজ নিয়ে ব্যস্ত। এমন নয় যে মান–অভিমান ছিল। আমাদের সম্পর্ক ঠিকই ছিল। গানগুলো আমরা নিজেরা করি, অনেক সময় প্রডাকশনের মাধ্যমে আসে, এখন তো প্রডাকশনের বিষয়গুলো নেই। তবে নকীব ভাইকে আমি নিজে থেকেই অনেকবার বলছি। ভাইও রাজি হয়েছেন। কিন্তু করব করব করে আর করা হয়নি। সম্প্রতি ভাইয়ের সঙ্গে কথা হলে বললেন, এত দিন ধরে বলছ, তোমার জন্য একটি গান রেডি করেছি। শুনেই ভালো লাগল। বুধবার গানটিতে ভয়েস দিয়েছি।’

নকীব খানের গানে যেমন আলাদা একটা বিশেষত্ব থাকে, তেমনি এই গানেও থাকবে বলে জানালেন কুমার বিশ্বজিৎ, ‘নকীব ভাই সংগীতে অনেক ম্যাচিউর একজন মানুষ। সুরের কাঠামো, সুরের গাঁথুনিটা অনেক ম্যাচিউর। এই গানের মধ্যে যেমন মেলোডি আছে, সেই রকম বাঁধনটাও আছে। সম্পূর্ণ গানটা শুনলে মনে থাকবে। গানে নকীব ভাইয়ের সিগনেচার আছে। বোঝা যাবে এটা নকীব ভাইয়ের।’
গানটির এখনো কোনো শিরোনাম ঠিক হয়নি। বিশেষ একটি সময়ে গানটি মুক্তি দিতে চান বিশ্বজিৎ। তখনই ঠিক করতে চান শিরোনাম। গানের সংগীত আয়োজন করেছেন কিশোর দাস। লিখেছেন শহীদ মাহমুদ জঙ্গী।

‘আমার ছোট্ট পরী’ শিরোনামে ছোটদের একটি গানও সম্প্রতি করেছেন কুমার বিশ্বজিৎ। গানের কথা লিখেছেন রাফিউজ্জামান রাফি। গানটির সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন সুমন কল্যাণ। গানটি প্রসঙ্গে কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘এখন দেশে ব্রোকেন ফ্যামিলি বেড়ে যাচ্ছে। পিতামাতারা বিচ্ছেদের পরে নতুন সংসার করেন। কিন্তু ভুক্তভোগী হচ্ছে শিশুরা। সে কোন পক্ষে যাবে? সামাজিকভাবে আমরা এখন বিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এখন সারা বিশ্বে এক সংস্কৃতি হয়ে গেছে। আমাদের মা–বাবা একসঙ্গে সংসার করে গেছেন। কিন্তু এখনকার জেনারেশনের অনেকেই তা করছে না। প্রতিনিয়ত এগুলো আমাদের ফেস করতে হচ্ছে। এই নিয়েই গান। থিমটি আমার খুবই ভালো লেগেছে।’

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন