কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন
কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীনছবি: সংগৃহীত

১৫ দিন পরে বাসায় ফিরলেন সংগীতশিল্পী বেবী নাজনীন। পুরোপুরি সুস্থতার জন্য তাঁকে আরও ১৪ দিন বাসায় আইসোলেশনে থাকতে হবে। পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, এই শিল্পী এখন আগের চেয়ে ভালো আছেন। গত ১৮ নভেম্বর হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে সঙ্গে সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সির একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরের দিন কোভিড-১৯ পরীক্ষার রিপোর্টে তাঁর পজিটিভ শনাক্ত হয়। হাসপাতালে তিনি করোনা চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

default-image

আজ ৩ ডিসেম্বর সকালে বেবী নাজনীনের ভাই এনাম সরকার জানান, আজই তিনি জানতে পেরেছেন, বেবি নাজনীনকে চিকিৎসকদের পরামর্শে বাসায় নেওয়া হয়েছে। তবে তাঁকে চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে থাকতে হবে। তিনি বলেন, ‘আপার করোনা শনাক্তের পরে তাঁর শারীরিক বেশ কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন চিকিৎসকেরা। তাঁর কিডনিতে কিছু জটিলতা ছাড়া অন্য কোনো সমস্যা নেই। আপু এখন ভালো আছেন। করোনা টেস্টের ফলাফলও নেগেটিভ এসেছে। চিকিৎসকেরা বলেছেন, আপাকে আরও ১৪ দিন বাসাতেই আইসোলেশনে থাকতে হবে। আপার সঙ্গে কথা হয়েছে, এ সময়ে তিনি বাসায় বিশ্রামে থাকবেন।’

বিজ্ঞাপন

নভেম্বর মাসের মাঝামাঝিতে খাওয়াদাওয়ায় অনিয়মের কারণে বেবী নাজনীন অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন বলে সে সময় জানিয়েছিলেন এনাম। তিনি বলেছিলেন, ‘আপার কিডনিতে কিছু সমস্যা আছে। সে জন্য তাঁকে খুব নিয়ম মেনে চলতে হয়। কিন্তু দেখা যায়, রাজনীতিতে জড়িত থাকায় আপাকে প্রায়ই দেশ-বিদেশে থাকা রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সঙ্গে ভার্চ্যুয়াল মিটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকতে হয়। খাওয়াদাওয়ায় অনিয়ম হওয়ায় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।’

default-image

সে সময় ১০৫ ডিগ্রি জ্বর ও শারীরিক দুর্বলতা দেখা দিলে বেবী নাজনীনকে জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে এই শিল্পীর পাশে ছিলেন তাঁর ছেলে মহারাজা অমিতাভ এবং বোন রিনি সাবরিন।

বেবী নাজনীন বেশির ভাগ সময় যুক্তরাষ্ট্রে থাকেন। ছেলে মহারাজা যুক্তরাষ্ট্রের হিউস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছেন। এ ছাড়া গান গাওয়ার জন্য প্রায়ই বিভিন্ন দেশে যান বেবী নাজনীন।

default-image

চলতি বছরের শুরুতেই তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যান। গত মার্চ মাসে দেশে ফেরার কথা থাকলেও বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারি সংক্রমণে তাঁর আর দেশে ফেরা হয়নি। এই সংগীতশিল্পী জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ দেশ-বিদেশের নানা পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। ‘এলোমেলো বাতাসে’, ‘রংধনু থেকে’, ‘মানুষ নিষ্পাপ পৃথিবীতে আসে’, ‘দুচোখে ঘুম আসে না’, ‘কাল সারা রাত ছিল’, ‘ও বন্ধু তুমি কই’—এমন অনেক জনপ্রিয় গানের মাধ্যমে সংগীতপ্রিয় মানুষের প্রিয় শিল্পী হয়ে ওঠেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন