default-image

খোলা আকাশের নিচে বা টিভির লাইভ শোতে নয়। ফেসবুকের মাধ্যমে এক ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম থেকে ভক্ত–শ্রোতাদের সরাসরি গান শোনাবেন এই সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় শিল্পী অর্ণব। ‘বাড়ি থেকে হোক কলরব’ শিরোনামে এই কনসার্ট হবে আগামী ২ অক্টোবর বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে আটটায়। অর্ণবকে নিয়ে এই আয়োজন করছে কলকাতার কার্প ডাইম নামের একটি সংগঠন। ইতিমধ্যে গত ২০ জুন থেকে কলকাতার অনেক জনপ্রিয় শিল্পী এই প্ল্যাটফর্মে গান শোনাতে শুরু করেছেন।

বিজ্ঞাপন
default-image

মহামারির বিপর্যয়ে সব ধরনের উন্মুক্ত অনুষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় শিল্পী ও শ্রোতার মধ্যে সংযোগের কোনো সুযোগ নেই। তাই শিল্পী ও শ্রোতার মধ্যে মেলবন্ধন রচনা করতে কার্প ডাইমের এই উদ্যোগ। আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, দুই বাংলায় জনপ্রিয় বলেই অর্ণবকে তারা এই কনসার্টের জন্য নির্বাচন করেছে।

দর্শনীর বিনিময়ে এই কনসার্টের টিকিট ভারতীয়দের জন্য ২২০ রুপি আর ভারতের বাইরের দর্শকদের জন্য ১০ ডলার। কনসার্টে যুক্ত হতে হলে প্রত্যেকের ফেসবুক প্রোফাইল লিংক পাঠাতে হবে। সেটা যাচাই–বাছাইয়ের পরই তাঁকে কনসার্টে যুক্ত করা হবে। অনলাইনে যুক্ত হওয়া যাবে এই লিংকে। এ কনসার্ট প্রসঙ্গে অর্ণব প্রথম আলোকে বলেন, ‘এই কনসার্ট ধরে একটা মজার কনটেস্টও হচ্ছে। “হোক কলরব” গানের কথা নিয়ে যে কারও কোনো সৃজনশীল সৃষ্টি, যেমন ছবি আঁকা, ক্যালিগ্রাফি, লেখা, এসব আমাদের জমা দিলে সেখান থেকে বাছাই করা সেরা তিনজনকে কনসার্টে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত করা হবে।’

বিজ্ঞাপন
default-image

অর্ণবের জনপ্রিয় ‘হোক কলরব’ গানটি থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই ‘বাড়ি থেকে হোক কলরব’ কনসার্টের নাম, তা নয়। এ প্রসঙ্গে অর্ণব বলেন, ‘এই গান কখনো কোনো আন্দোলনের প্রেরণা হতে পারে, তা আমার ভাবনাতেও ছিল। “হোক কলবর” নিরীহ একটা গান। এতে অনেক অনেক প্রশ্ন তোলা হয়েছে। “লাল না হয়ে নীল হলো ক্যান?”, “তাল না হয়ে তিল হলো ক্যান?” যেমন শিশুরা অনেক কৌতূহল নিয়ে প্রশ্ন করে। কিন্তু আমরা যত বড় হই, আমাদের প্রশ্ন কমতে থাকে, আমরা নির্বিকার হতে থাকি, সব চুপচাপ মেনে নিতে থাকি। এই যেমন এখন ঢাকার রাস্তা থেকে কুকুর সরিয়ে নিয়ে দূরে ফেলে আসা হচ্ছে। এ নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন না। কিন্তু তোলা উচিত। এই গানটা হয়তো অনেককেই প্রশ্ন তোলার কথা মনে করিয়ে দেয়। তাই হয়তো এটা যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনের প্রেরণা হিসেবে কাজ করছে। কিন্তু আমরা ওর কথা ভেবে কনসার্টের এই নাম দিইনি।’

‘হোক কলরব’ গানটি অর্ণবের জন্য লিখেছিলেন রাজীব আশরাফ। সুর করেছিলেন অর্ণব নিজেই। ২০১৫ সালে নিজের ষষ্ঠ একক অ্যালবাম ‘খুব ডুব’ প্রকাশের পর হুট করেই গানের ভুবন থেকে ডুব দেন অর্ণব। পরে অল্প কয়েকটি লাইভ অনুষ্ঠান ও কনসার্টে গাইতে দেখা গেছে তাঁকে। সর্বশেষ ঈদুল ফিতরে ‘চোরাকাঁটা’ শিরোনামে একটি নতুন গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন তিনি। কদিন আগেও ‘এই তো তোমার আলোকধেনু’ শিরোনামের একটি রবীন্দ্রসংগীত ধারণ করা হয় অর্ণব ও পশ্চিমবঙ্গের শিল্পী সুনিধি নায়েকের কণ্ঠে।

মন্তব্য পড়ুন 0