default-image

প্লেব্যাকের জুটি ইমরান ও কনাকে ঈদ উপহার দিয়েছেন তাঁদের ভক্ত-শ্রোতারা। দ্বৈতকণ্ঠে তাঁদের গাওয়া ‘দিল দিল’ গানটির ‘ভিউ’ ইউটিউবে সাত কোটিতে পৌঁছেছে। শাকিব খান ও বুবলী অভিনীত ‘বসগিরি’ ছবির এই গান ২০১৬ সালে ৪ সেপ্টেম্বর ললিপপ ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়। তখন থেকেই ঝড় তোলে গানটি। ছয় মাসের মাথায় বাংলাদেশি প্লেব্যাকে দর্শক ভিউয়ের রেকর্ড গড়ে গানটি দেখা হয় ১ কোটিবার।

‘দিল দিল’ গানটি নিয়মিত দেখছেন দর্শক-শ্রোতারা। প্রকাশের পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় সাত কোটিবার দেখা হয়েছে গানটি। চলচ্চিত্রের গান দেখার এই রেকর্ড শিল্পী ইমরান ও কনার জন্য এক অনন্য প্রাপ্তি। গতকাল শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত গানটি দেখা হয়েছে সাত কোটি ছয় লাখবারের বেশি। এ নিয়ে আনন্দের অন্ত নেই শিল্পী ইমরান মাহমুদুলের। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, এটি শ্রোতা-দর্শকের কাছ থেকে পাওয়া আমার ঈদ উপহার। আমার ঈদকে আরও আনন্দময় করেছে গানটির এই রেকর্ড। শুরু থেকে চলচ্চিত্রর গানে ভক্ত-শ্রোতাদের পাশে পেয়েছি আমি। তাঁরা আমার জন্য আশীর্বাদ।’

ইমরান বলেন, ‘“দিল দিল” গানটি বাংলাদেশে চলচ্চিত্রের প্রথম গান, যার দর্শক ভিউ প্রথম কোটির ঘরে স্পর্শ করে। গানটি সব সময় দর্শকদের কাছে নতুন মনে হয়। আমি নিজেও যখন স্টেজে গাই, দর্শকের মধ্যে যে উন্মাদনা তৈরি হয়, মনে হয় নতুন গানের ফিল পাই। মনে হয় সদ্য রিলিজ হওয়া গান এটি।’

গানটির আরেক শিল্পী কনা বলেন, ‘বলা যায় এই গানটি দিয়েই আমার আর ইমরানের জুটি তৈরি করে দিয়েছে। ঈদের আগে আগে গানটির ভিউ সাত কোটি হওয়ায় গানের মানুষ হিসেবে ঈদের আনন্দ দ্বিগুণ হবে। আমি দর্শকদের কাছে কৃতজ্ঞ।’

কেবল ‘দিল দিল’ নয়, এই জুটির গাওয়া ‘ওহে শ্যাম’ গানটিও বাংলা চলচ্চিত্রের গান হিসেবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দর্শক ভিউ পেয়েছে। বর্তমানে গানটির ভিউ প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি। ‘পোড়ামন টু’ ছবির এই গান জাজ মাল্টিমিডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয় ২০১৮ সালে ২৫ মে।

default-image

সম্প্রতি সিএমভির ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত হয়েছে ‘জানি পাব না’ গানটি। গত ছয় দিনে প্রায় ১৯ লাখবার দেখা হয়েছে গানটি। গানটিতে ইমরানের সঙ্গে কণ্ঠ দিয়েছেন ‘গানের রাজা’ প্রতিযোগিতার তারকা সিঁথি সরকার।

চার মাস ধরে ঘর থেকে বের হচ্ছেন না ইমরান। ঈদেও বের হওয়ার পরিকল্পনা নেই। তিনি বলেন, ঈদের দিন বাসায় থাকব। যেহেতু বাইরে আড্ডা দিতে পারব না, তাই ফোনেই বন্ধুদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করব। ঘরে বসে টেলিভিশনে ঈদের নাটকসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠান দেখব। পাশাপাশি ঈদে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রকাশিত গানগুলো শুনব।’

তবে কনাকে আটকানো যাচ্ছে না। ঈদের ছুটি কাটাতে মা–বাবার সঙ্গে গাজীপুরে গ্রামের বাড়িতে গেছেন কনা। সেখানেই পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদ্‌যাপন করবেন তিনি। কনা বলেন, ‘ঢাকা থেকে বড় বোন, কাজিনরাও এসেছে। একসঙ্গে সবাই মিলে ঈদ উদ্‌যাপন করব। সবাই মিলে টেলিভিশনে ঈদের অনুষ্ঠান উপভোগ করব।’ এ ছাড়া ঈদের দিন কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের দুটি বাংলা ইউটিউব চ্যানেলে সরাসরি যুক্ত হবেন বলে জানালেন কনা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন