বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অক্টোবরের ২৭–৩১ পর্তুগালের পোর্তো শহরে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ডওয়াইড মিউজিক এক্সপোতে (ওমেক্স) অংশ নিয়েছেন তিনি। সেই ফাঁকে গিয়েছিলেন সুইজারল্যান্ড। সেখানে নিজের ফোনে করা ভিডিও আর বন্ধুর স্টুডিওতে নতুন গানের রেকর্ডিং করেছিলেন চিরকুটের সুমী। তিনি বলেন, ‘এ গানে সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের যোগসূত্র স্থাপন করেছি। সেখানকার আবেগ, বাংলাদেশের আবেগকে সংযোগ স্থাপনের চেষ্টা করেছি। আমাদের হাসি, কান্না, অনুভূতি সবই এক, মনের ভাষা এক, কেবল মুখের ভাষাটা আলাদা।’

সুমি জানান, ‘যাযাবর’ গানটার ভিডিও করেছেন ভেভে ও মনট্রাক্স শহরে। চার্লি চ্যাপলিনের শহর ভেভে আর মনট্রাক্সে থাকতেন কুইন ব্যান্ডের ফ্রেডি মার্কারি। বসবাসের জন্য পৃথিবীর অনেক খ্যাতিমান শিল্পীর খুব পছন্দের দুই শহর। ডিপ পার্পল ব্যান্ডের ‘স্মোক অন দ্য ওয়াটার’ গানটাও এ শহরেই করা। ওরা যখন সেখানে গাইতে এসেছিল, তখন মঞ্চটা পুড়ে যায়। তখনই এ গানের জন্ম। সুমি বলেন, ‘ঐতিহাসিক এ শহরে আমাদেরও একটা গান হলো। সেখানে গিয়ে চিরকুট সদস্যদের খুব মিস করেছি। তবে দলের জন্য সেখান থেকে একটা গান আনতে পেরে খুব ভালো লাগছে।’

গানের ভিডিওর পরিচালক সুইজারল্যান্ডের ফ্রাসোঁয়া বোয়েতসি, প্রকাশক জার্মানির সংরাইট পাবলিশার্স। গানটি উৎসর্গ করা হয়েছে ব্লাড ক্যানসারের সঙ্গে যুদ্ধরত চিরকুটের ভক্ত রুমকিকে।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন