স্যারদের ভূমিকাই ছিল বেশি। আমাদের বিভাগের প্রধান ছিলেন নাজমুল করিম। গানে ব্যস্ত সময় পার করার কারণে তাঁর কাছ থেকে যেমন ছাড় পেতাম, তেমনি আমাকে লেখাপড়ায় সবচেয়ে বেশি সাহায্য করত সহপাঠীরা। অনেক ক্লাসই করতে পারতাম না।

default-image

এক স্টুডিও থেকে আরেক স্টুডিওতে রেকর্ডিংয়ে সময় পার হতো। বন্ধুরা নোট দিয়ে, বই দিয়ে পাশে ছিল—তাই বিশেষ কোনো অসুবিধা হয়নি।

default-image

বিশ্ববিদ্যালয়ে আমার কাছে সবচেয়ে বেশি স্মৃতিময় ছিল মধুর ক্যানটিন। এত সুন্দর পরিবেশ ছিল। ছাত্রছাত্রীও কম ছিল। শান্ত পরিবেশ। মধুর ক্যানটিনে গেলেই গান গাইতে হতো। না গাইলে ছাড়ত না।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন