বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

৩০ বছর বয়সে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় অ্যাডেলের। দীর্ঘদিন বিচ্ছেদের ব্যাপারে মুখ খোলেননি তিনি। তবে এবারে অকপটে সব গোপন কথার ভাগ দিলেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের বিচ্ছেদের কারণে সন্তানকে অনেক মূল্য দিতে হয়েছে। কিন্তু আমি যদি এই পথ বেছে না নিতাম, আমার জীবনটা ছারখার হয়ে যেত।’ তিনি বলেন, ‘আমার ছেলেটার কত কত প্রশ্ন! প্রশ্নগুলো সুন্দর, নিষ্পাপ, অথচ সেসবের কোনো উত্তর আমার কাছে ছিল না, যেমন “তোমরা কেন একসঙ্গে থাকো না?” আমার মনে হয়েছিল, ওকে বিষয়গুলো বুঝিয়ে বলা প্রয়োজন যে কেন আমি নিজের সুখের জন্য তার জীবনটা এলোমেলো করে দিলাম। আমি প্রায়ই তাকে খুব কষ্ট দিয়েছি আর সেটা আমার জন্য ছিল অত্যন্ত বেদনাদায়ক। জানতাম না কীভাবে এ ব্যথা আমি সারিয়ে তুলব।’

default-image

অ্যাডেল ও সাইমন ২০১১ সালে প্রেমে জড়ান। ২০১২ সালে সন্তান অ্যাঞ্জেলোর জন্ম। ২০১৭ সালে গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডের সময় সাইমনকে ‘স্বামী’ সম্বোধন করায় এক সংবাদমাধ্যমে খবর বের হয়, তাঁরা নাকি ২০১৬ সালে বিয়ে করেছেন। যদিও সম্পর্কটা কত দিন টিকল, ‘ভোগ’-এর সাক্ষাৎকারে সেটা বলতে রাজি হননি অ্যাডেল। কেবল বলেছেন ২০১৯ সালে বিচ্ছেদের কথা। তিনি বলেন, ‘পরিচিত অন্য আর দশজন লোকের মতো আমি সম্পর্কটা শেষ করতে চাইনি। যদিও এটা অত্যন্ত দুঃখজনক, কিন্তু আরও দুঃখজনক হতো, যদি না সিদ্ধান্তটা আমিই আগে নিতাম।’

বিচ্ছেদ নতুন গানের অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে অ্যাডেলকে। সেসব নিয়ে হচ্ছে নতুন অ্যালবাম, যেখানে বিচ্ছেদের পরের জীবনের ঘটনাগুলো উঠে আসবে। শিগগিরই প্রকাশিত হবে সেটি। ইতিমধ্যে ‘ইজি অন মি’ গানটির সাদাকালো ট্রেলার প্রকাশিত হয়েছে। নতুন গান ছেলে অ্যাঞ্জেলোর জন্য প্রেম-সম্পর্কিত একটা দিকনির্দেশনার মতো কাজ করবে। তিনি বলেন, ‘এটি অ্যালবামের জন্য আমার লেখা প্রথম গান এবং তার পরের ছয় মাস আমি কিচ্ছু লিখিনি। কারণ, এ গানেই আমার আসলে সবকিছু বলা হয়ে গেছে। আমার জীবনে যা ঘটল, সে ব্যাপারগুলোই আমি নতুন অ্যালবামে রাখতে চেয়েছি, যাতে অ্যাঞ্জেলো বুঝতে পারে যে সঙ্গীর সঙ্গে কেমন আচরণ করা উচিত।’

বিচ্ছেদের পর প্রচণ্ড মানসিক যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলেন অ্যাডেল। নিতে হয়েছিল থেরাপি। তিনি বলেন, ‘যখনই আমি এ যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পাওয়ার চেষ্টা করতাম, তখন সেটা আরও বেড়ে যেত। পরে আমি থেরাপি নিতে শুরু করি।’ বিচ্ছেদের পর নতুন একদল তারকার সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় অ্যাডেলের। মিশতে শুরু করেন নতুন পরিসরে। তাঁদের মধ্যে অন্যতম অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্স।

default-image

রিচ পল নামের এক ক্রীড়া ব্যক্তিত্বের প্রেমে জড়িয়েছেন অ্যাডেল। সাইমনের থেকে বিচ্ছেদের পর অবশ্য বেশ কয়েকজনের সঙ্গে তাঁর প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। কিন্তু জুলাইয়ে রিচের সঙ্গে অ্যাডেলকে এক বাস্কেটবল ম্যাচে দেখা গেছে। তবে এর মধ্যে আরও অনেকের সঙ্গে প্রেম করেছেন তিনি। সেটা স্বীকার করে অ্যাডেল বলেন, ‘আমার মতো মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক তারা এগিয়ে নিতে পারেনি। তবে রিচ অসাধারণ, সে খুবই মজার মানুষ, স্মার্ট।’

default-image

মেদ ঝরিয়ে অস্বাভাবিক ঝরঝরে হওয়ার রহস্য কী? প্রায় নেশাগ্রস্তের মতো ব্যায়াম করেছেন অ্যাডেল। কমিয়েছেন প্রায় ৪৫ কেজি ওজন। তিনি বলেন, ‘ব্যায়াম করতে ভালো লাগত। ব্যাপারটাকে কেবল ওজন কমানো মনে হতো না। বরং নিজেকে শক্তিশালী মনে হতো।’ গত বছরের মে মাসে যখন নতুন রূপে একটু একটু করে মানুষের সামনে হাজির হচ্ছিলেন তিনি, তখন তাঁর ডায়েট নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন