default-image

কানিয়ে ওয়েস্ট ও কিম কার্ডাশিয়ান কিছুদিন ধরেই আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় নানা বিষয় নিয়ে খবর হয়ে আসছেন। শোনা যাচ্ছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়াবেন মার্কিন এই র‍্যাপার। সাউথ ক্যারোলাইনায় একটি বিশেষ ভাষণও দেন তিনি। সেখানেই তিনি কিম কার্ডাশিয়ানের সঙ্গে ছয় বছরের বিবাহিত জীবনের টানাপোড়েন নিয়ে কথা বলেন। চার সন্তানের জনক জানান, আরেক মার্কিন র‍্যাপার মিক মিলের সঙ্গে কিমের সাক্ষাতের পর থেকেই তিনি তাঁর সঙ্গে বিচ্ছেদ চান। প্রকাশ্যে নিজের বাইপোলার ডিজঅর্ডার ও বিষণ্নতা নিয়ে কথা বলেছেন। এর একপর্যায়ে তিনি টুইটারে লেখেন, ‘আমার মানসিক অসুস্থতার সময় কিম আমাকে একজন চিকিৎসকের সঙ্গে একটা ঘরে বেঁধে রাখতে চেয়েছিল।’

ব্যক্তিগত সম্পর্কের কথা এভাবে প্রকাশিত হওয়ায় কিম কার্ডাশিয়ান এক টুইটে গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশে লেখেন, ‘কানিয়ে একজন দুর্দান্ত মানুষ। কিন্তু সে কিছু জটিলতায় ভুগছে। সে একজন শিল্পী ও তারকা, যে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক সংকটের ভেতর দিয়ে যাচ্ছে, আর কিছুদিন আগেই মাকে হারিয়েছে। তাই এ রকম পরিস্থিতিতে আমাদের দাম্পত্য জীবন বিষয়ে ওর কোনো মন্তব্য নিয়ে মাতামাতি করবেন না। এই মুহূর্তে আমরা নিজেদের জন্য একটু সময় চাই। আপনারা এ রকম পরিস্থিতিতে আমাদেরকে নিজেদের মিটমাট করে নেওয়ার সুযোগ দিন। প্লিজ, পরিস্থিতি জটিল করে তুলবেন না।’

কিমের এ রকম টুইটের পর কানিয়ে তাঁর ভুল বুঝতে পেরে পুরোনো টুইট ডিলিট করেন। আর নতুন টুইটে কিমের কাছে ক্ষমা চেয়ে লেখেন, ‘আমি নিজেদের একান্ত ব্যক্তিগত বিষয় প্রকাশ্যে আনায় কিমের কাছে ক্ষমা চাই। সে আমাকে যেভাবে গোপনীয়তার চাদরে মুড়ে রেখেছে, আমি ওর বেলায় তা পারিনি। আমাকে ক্ষমা কোরো, প্রিয়। তুমি সব সময় আমার সংকটে পাশে ছিলে।’
কিম কার্ডাশিয়ান কানিয়ে ওয়েস্টের প্রথম স্ত্রী। আর কানিয়ে ওয়েস্ট কিম কার্ডাশিয়ানের তৃতীয় স্বামী। ছয় বছরের সংসারজীবনে এবারই প্রথম বিচ্ছেদের বিষয়ে সবার সামনে কথা বললেন কানিয়ে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন