default-image

প্রতিবছরের মতো এবারও অনুষ্ঠিত হলো শাস্ত্রীয় সংগীতের বড় আয়োজন ‘ইস্পাহানি মির্জাপুর-চ্যানেল আই বাংলা খেয়াল উৎসব ২০২১’। রোববার চ্যানেল আই স্টুডিওতে বাংলা খেয়াল উৎসবের উদ্বোধন করেন চ্যানেল আইয়ের পরিচালক ও বার্তাপ্রধান শাইখ সিরাজ। করোনার কারণে সীমিত পরিসরে অনুষ্ঠিত প্রয়াত আজাদ রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শাইখ সিরাজ বলেন, ‘মানুষের অনুপ্রেরণা ও শক্তি বাংলা খেয়াল উৎসবকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। যারা শাস্ত্রীয় সংগীতানুরাগী এবং আগামীর প্রজন্মের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতের বনিয়াদ যাদের শক্তিশালী হয়, সে জন্য খেয়াল উৎসব ভবিষ্যতে অনেক বেশি ভূমিকা পালন করবে।’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংগীতশিল্পী ফেরদৌস আরা, আজাদ রহমানের স্ত্রী সেলিনা আজাদ, ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত ছিলেন ইস্পাহানি টি লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক ওমর হান্নান প্রমুখ।
এ উৎসব সম্পর্কে সংগীতশিল্পী ফেরদৌস আরা বলেন, ‘করোনাকালেও বাংলা খেয়ালের মতো বড় কাজ সাবধানতা মেনে করছে চ্যানেল আই। এ জন্য মন থেকে এর সঙ্গে জড়িতদের জানাই ভালোবাসা। বাংলা খেয়ালের ভাবনায় ছিলেন আজাদ রহমান। তিনি আমাদের মাঝে নেই। তবে তাঁর জন্য অনেক অনেক শ্রদ্ধা ও শান্তি কামনা করছি।’

বিজ্ঞাপন

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আজাদ রহমানকে শ্রদ্ধা জানিয়ে একটি প্রামাণ্য প্রতিবেদন প্রদর্শিত হয়। শুদ্ধ সংগীত নিয়ে আগামী প্রজন্ম বেড়ে উঠছে। তাদের বনিয়াদ আরও শক্তিশালী করতে বাংলা খেয়ালের এ উৎসব আরও বড় ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন সংগীতের বিশিষ্টজনেরা।

default-image

আজাদ রহমানের স্ত্রী সেলিনা আজাদ বলেন, ‘এবার বাংলা খেয়াল হবে কি না, সেটা নিয়ে চিন্তিত ছিলাম। কিন্তু চ্যানেল আই বরারবের মতো এগিয়ে এসেছে। প্রয়াত আজাদ রহমান চলে যাওয়ায় আমাদের মাঝে যে শোক, সেই শোককে শক্তিতে পরিণত করতে হবে। আগামীতেও বাংলা খেয়াল চলতে থাকুক, এই কামনা করি।’
৩১ জানুয়ারি বিকেল ৫টা ২০ মিনিট থেকে শুরু হয়ে অনুষ্ঠানটি একটানা চলে শেষ হয় ১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৯টায়।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন