আধুনিক গান নিয়ে যে তরুণ শিল্পীরা এগিয়ে যাচ্ছেন, ইমরান তাঁদের অন্যতম। কীভাবে পেলেন এত জনপ্রিয়তা? ইমরান বলেন, ‘অনেক স্বপ্ন নিয়ে আমি গানের প্রতিযোগিতায় নাম লেখাই। সব সময় নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করতাম। সেই প্রতিযোগিতায় আমি দ্বিতীয় হই। সেখান থেকে বের হয়ে ভাবলাম কম্পোজিশন শিখবে। শুধু সংগীতশিল্পী হয়ে থাকতে চাইনি আমি। ধীরে ধীরে বিচরণ শুরু করলাম সংগীতের অন্যান্য শাখায়।’

‘বড় মঞ্চের তারকা’ অনুষ্ঠানের সঞ্চালক অভিনেত্রী পূর্ণিমা। ইমরানের কাছে তিনি জানতে চান, ‘তোমার কোনো গসিপ নেই, কোনো স্ক্যান্ডাল নেই। কীভাবে সম্ভব? এ প্রসঙ্গে ইমরান বলেন, ‘সবাই আমাকে ভালোবাসে। সবাই আমাকে পছন্দ করে।’ ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্নে পূর্ণিমা জানতে চান, আগামী ১০ বছর পর তুমি নিজেকে কোথায় দেখতে চাও? ইমরান বলেন, ‘আমি সব সময় একজন সফল মিউজিক ডিরেক্টর ও গায়ক হয়ে থাকতে চাই। ১০ বছর পর আমি সেটাই থাকতে চাই। এখন যা আছি, খুব ভালো আছি। নিজেকে শুধু ধরে রাখার চেষ্টা করব।’ অনুষ্ঠানে নিজের একটি গান গেয়ে শোনান তিনি।

ইমরান জানান, মৌলিক গান করাই ছিল তাঁর জীবনের লক্ষ্য। তিনি বলেন, ‘আমার টার্গেট ছিলে মৌলিক গান করা। মৌলিক গান দিয়েই আমি শ্রোতাদের প্রীতি কুড়িয়েছি, এই জায়গায় এসেছি। সামনে আরও এগিয়ে যেতে চাই। আমার স্বপ্ন ছিল এবং স্বপ্নটা পূরণ হয়েছে। আগামীর যে স্বপ্নগুলো দেখছি, আশা করি সেগুলোও পূরণ হবে।’

দেশের সীমানা পেরিয়ে ভিনদেশে নিজেদের দ্যুতি ছড়িয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশের যেসব তারকা, তাঁদের নিয়েই প্রথম আলোর আয়োজন ‘বড় মঞ্চের তারকা’। হাতিল নিবেদিত এ অনুষ্ঠান প্রথম আলোর অনলাইন, ফেসবুক পেজ ও ইউটিউব চ্যানেলে দেখা যাচ্ছে।