বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

মিল্টন খন্দকার বলেন, ‘শিল্পী এবং ব্যক্তি তপন চৌধুরী আমার খুবই পছন্দের মানুষ। তপনদার গান শুনে শুনেই গানে আসায় উদ্বুদ্ধ হয়েছিলাম, তাঁর গান শুনেই নিশ্চিত হয়েছিলাম আমাকেও গান করতে হবে। তখন থেকেই লিখতাম। ১৯৮৬ সালে গানের অঙ্গনে ক্যারিয়ার শুরু করার পরে তপনদার সঙ্গে ফিল্মে কিছু গান করা হয়েছে। তারপর দুই একটি গান হলেও বেশ কয়েক বছর আমাদের নতুন গান করা হয়নি। দীর্ঘদিন পর গানটি তৈরি করে আমি নিজেও তৃপ্ত ছিলাম।’

default-image

‘তোমার চলে যাওয়া দেখেছি’ শীর্ষক গানটির কথা লিখেছেন কবির বকুল। সুর করেছেন মিল্টন খন্দকার। গানের সংগীত আয়োজন করেছেন জি এম লিপন। বিটিভির একজন গীতিকার ও একজন সুরকারের গান নিয়ে তৈরি একটি অনুষ্ঠানের জন্য গানটি তৈরি করা হয়েছিল।

default-image

মিল্টন খন্দকার জানালেন, ‘তপন চৌধুরীকে নিয়ে গানের পরিকল্পনা থাকলেও অনেক সময় করা সম্ভব হয় না। কারণ, প্রায় এক যুগ হলো তিনি বাংলাদেশ–কানাডা যাওয়া–আসার মধ্যে থাকেন। দাদা হুট করেই দেশে আসেন, আবার চলে যান। অনেক সময়ই জানতেও পারতাম না। পরে আমি কবির বকুলকে বলে রেখেছিলাম, দাদার সঙ্গে অনেক দিন কাজ করা হয় না। দেশে এলে দাদার সঙ্গে একটি গান করার ব্যবস্থা করতে হবে। পরে করোনা শুরুর ঠিক আগে দাদা দেশের এলে আমার নাম শুনে সঙ্গে সঙ্গে রাজি হয়ে যান।’
সর্বশেষ একটি ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে ‘চিন্তারাম দারোগা’ নামে একটি গান করেছিলেন তপন চৌধুরী ও মিল্টন খন্দকার।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন