বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সত্তরের দশকে বিশ্বজুড়ে হইচই ফেলে দিয়েছিল পপ গানের দল অ্যাবা। এ বছর অ্যালবাম প্রকাশের পাশাপাশি আগামী বছর লন্ডনের কুইন এলিজাবেথ অলিম্পিক পার্কে প্রত্যাবর্তন কনসার্টের আয়োজন করেছে তারা। পরিকল্পনা রয়েছে আরও বেশ কয়েকটি কনসার্টের। অ্যালবাম প্রকাশ নিয়ে বিবিসিকে সাক্ষাৎকার দেন অ্যাবার দুই সদস্য বেনি অ্যান্ডারসন ও বিয়র্ন উলভিউস। বেনি বলেন, ‘আমাদের প্রমাণ করার কিছু নেই আর আমরা মনে করি না যে বিরাট একটা ঝুঁকি নিয়ে ফেলেছি। লোকে যদি ভাবে যে ৪০ বছর আগেই আমরা ভালো ছিলাম, সে–ও ভালো।’ বিয়র্ন উলভিউস বলেন, ‘অ্যালবাম প্রকাশে আমাদের দলের নারীরাও খুশি। তারা বিশেষভাবে খুশি এই কারণে যে তাদের তেমন কিছুই করতে হয়নি।’

শুরুতে ‘বেনি অ্যান্ড বিয়র্ন’ নামে যাত্রা করেছিল ‘অ্যাবা’। পরে বদল হয় নাম। দীর্ঘদিন আড়ালে থাকলেও এখনো শ্রোতাদের কাছে পপ আইকন হয়ে আছে দলটি। ১৯৮১ সালের পর আর একসঙ্গে স্টেজে ওঠেননি অ্যাবার বেনি অ্যান্ডারসন, আনিয়্যাতা ফ্যাল্তকুগ, আনি-ফ্রিদ লিংগস্টার্ড ও বিয়র্ন উলভিউস। দীর্ঘ বিরতির পর আবার একসঙ্গে ফিরতে যাচ্ছেন তাঁরা।

default-image

‘মামা মিয়া’, ‘লে অল ইয়োর লাভ অন মি’, ‘ডাজ ইয়োর মাদার নো’সহ বহু জনপ্রিয় গান রয়েছে অ্যাবার। যাত্রার শুরুর পর থেকে ক্রমেই বিশ্বব্যাপী পরিচিত ও জনপ্রিয় হয়ে ওঠে দলটি। প্রায় ১২ বছর বিশ্ব মাতানোর পর ১৯৮২ সালে ভেঙে যায় দল। এর নেপথ্যে ছিল ব্যক্তিগত সম্পর্কের টানাপোড়েন। সেসব ভুলে গিয়ে আবার এক হলো অ্যাবা।

গান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন