default-image

পুষ্পবতী স্কুলের শিক্ষিকা। শাঁখা-সিঁদুর আর তাঁতের শাড়িতে জড়ানো আটপৌরে এক বাঙালি নারী। ত্রিশের দশকের আর দশজন সম্ভ্রান্ত নারীর মতোই পরিপাটি লম্বা চুল আর চামড়ার চটি থাকে তাঁর পায়ে। সে সময়ের সেই চরিত্রকেই আবার প্রাণ দিয়েছেন অভিনেত্রী ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর। অভিনয় করছেন সেই পুষ্পবতীর চরিত্রেই। এরই মধ্যে তাঁর এ চরিত্রের অভিষেক ঘটেছে টিভি পর্দায়। রাবেয়া খাতুনের উপন্যাস মোহর আলী অবলম্বনে তৈরি একই নামের ধারাবাহিকে পুষ্পবতী সাজে দেখা যাচ্ছে ঊর্মিলাকে। কিন্তু গত ডিসেম্বর থেকে এ চরিত্রে কাজ শুরুর পরও নিজেকে মনের মতো করে পুষ্পবতীর ছাঁচে বসাতে পারছেন না ঊর্মিলা। তাঁর ভাষায়, ‘ঐতিহাসিকভাবে পুষ্পবতীর চরিত্রটি অনেক তাৎপর্যপূর্ণ। তাই যত দিন যাচ্ছে, আমি এর ভেতর ততই গভীরভাবে ঢুকে যাওয়ার চেষ্টা করছি। পুষ্পবতীকে নিয়ে এরই মধ্যে বেশ কয়েকটি বই পড়েছি। আরও পড়ছি।’
পুষ্পবতী হলেন ১৯৩০ সালে ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম নেতা মাস্টারদা সূর্য সেনের একজন গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী। রাবেয়া খাতুনের মোহর আলী ছাড়াও তাঁর ওপর লেখা হয়েছে অনেক বই। ঊর্মিলা তাঁর এ নাটকের পুষ্পবতীর চরিত্রকে পূর্ণতা দিতেই এখনো পড়াশোনা করছেন। কারণ, ইতিহাসের কোনো গুরুত্বপূর্ণ দিক যেন ছুটে না যায়, সেই চিন্তায় নিয়মিত শুটিংয়ের বাইরেও ভাবছেন পুষ্পবতীর জীবন ও তাঁর ছবি নিয়ে। শুটিংয়ের ফাঁকে সহ-অভিনেতা ও পরিচালকের কাছ থেকেও নিচ্ছেন প্রয়োজনীয় পরামর্শ।
চ্যানেল আইয়ে প্রতি রবি ও সোমবার রাত ৭টা ৫০ মিনিটে প্রচারিত হচ্ছে এ ধারাবাহিক। এর চিত্রনাট্যে অরুণ চৌধুরী। পরিচালনা করছেন অরুণ চৌধুরী, রুবেল হায়দার ও তাহের শিপন।

বিজ্ঞাপন
টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন