default-image

নিজের পরিবারেই আশ্রিত হয়ে বেড়ে ওঠে এলিফ। জন্মের আগেই এলিফের মা মেলেক বিতাড়িত হন তাঁর বাড়ি থেকে। এলিফের বাবা কেনান বাড়ি থেকে বের দেন মেলেককে। শুরু হয় মেলেকের একাকী জীবনসংগ্রাম। একাকীই থাকতেন মেলেক। কিন্তু নিজের মেয়ে এলিফের কথা ভেবে তিনি বিয়ে করেন বেইসেল নামের এক লোককে। কিন্তু নিষ্ঠুর জুয়াড়ি বেইসেলের পাশবিক অত্যাচারে মেলেক অসুস্থ হয়ে পড়েন। এলিফকে শিশু পাচারকারীদের কাছে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেন বেইসেল।

বিজ্ঞাপন
default-image

এখানেই এলিফের গল্প শেষ হয়ে যায় না। এলিফের মা মেলেক জেনে যান যে এলিফকে শিশু পাচারকারীদের হাতে তুলে দিতে যাচ্ছেন বেইসেল। মেলেক এলিফকে বাঁচান। কিন্তু এলিফ বেড়ে ওঠে একটি অবহেলিত মেয়ে হিসেবে। এদিকে বেইসেল এক কুটিল নারীকে বিয়ে করেন। এলিফের জীবনটা হয়ে ওঠে আরও কষ্টের।

এভাবেই এলিফ শৈশব থেকেই এক সংগ্রামী জীবন শুরু করে। এলিফের এই সংগ্রামী জীবন নিয়ে তৈরি হয়েছে তুর্কি ধারাবাহিক ‘এলিফ’। বাংলায় ডাবিং করে এটি আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা থেকে প্রচারিত হবে দীপ্ত টিভিতে। পরদিন দুপুর ১২টা ১০ মিনিটেও দেখা যাবে এটি। সপ্তাহের প্রতিটি দিনেই একই সময়ে প্রচারিত হবে এটি।

default-image


দীপ্ত টিভি সূত্র জানিয়েছে, টেলিভিশনটির নিজস্ব ডাবিং টিমের আন্তরিক পরিচর্যায় গল্পটি হয়ে উঠেছে আরও প্রাণবন্ত ও আকর্ষণীয়। অনূদিত সংলাপ রচনা ও সম্পাদনায় কাজ করেছেন জান্নাতুল ফেরদৌস চৌধুরী, ইব্রাহিম খলিল, তানজিনা রহমান, মো. ফরহাদ হোসেন, শামীমা সুলতানা ও শামীমা আক্তার।

কণ্ঠাভিনেতা ও কণ্ঠাভিনয় পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন মেরিনা মিতু। সেখানে কণ্ঠ দিয়েছেন নাহিদ আখতার (এলিফ), জয়শ্রী মজুমদার (মেলেক শিমশেক), শোভন দাস (কেনান এমিরওলু), তানিয়া পাটোয়ারী (আরজু এমিরওলু), রাফিকুল সেলিম (বেইসেল শিমশেক), নাদিয়া ইকবাল (তুইচে এমিরওলু), ইরা রহমান (আলিয়ে এমিরওলু), শাহরিয়ার রানা (সেলিম এমিরওলু), ইন্দ্রানী ঘটক (জেইনেপ শিমশেক), অভিক সাহা (মুরাত), মেহবুবা মিনহাজ (আইশে)।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন