প্রচার শুরু হওয়ার পর থেকে দর্শকপ্রিয় হয়ে ওঠে ধারাবাহিক নাটক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’।
প্রচার শুরু হওয়ার পর থেকে দর্শকপ্রিয় হয়ে ওঠে ধারাবাহিক নাটক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’।ছবি: ফেসবুক থেকে।

প্রচার শুরু হওয়ার পর থেকে দর্শকপ্রিয় হয়ে ওঠে ধারাবাহিক নাটক ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’। নাটকটির দ্বিতীয় কিস্তি শেষ হয়েছে, এখন প্রচার চলছে তৃতীয় কিস্তির। নাটকের আগের দুই সিরিজের অভিনেতা তৌসিফ মাহবুব ও শামীম হাসান সরকার নতুন সিরিজে থাকছেন না। একটি সূত্র জানিয়েছে, গল্পের কারণেই বাদ পড়েছেন দুজন। অন্য একটি সূত্র বলছে, ব্যক্তিগত কারণে এ দুই অভিনেতা নাটকটি ছেড়েছেন।
‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ২০১৮ সালে প্রথম প্রচারিত হয় চ্যানেল নাইনে। শুরু থেকেই ধারাবাহিকের নেহাল ও আরিফিন চরিত্রে অভিনয় করছেন তৌসিফ মাহবুব ও শামীম হাসান সরকার। কেন এ দুই অভিনেতা বাদ যাচ্ছেন, জানতে চাইলে নির্মাতা ও রচয়িতা কাজল আরিফিন জানান, গল্পে নতুনত্ব আনতে চরিত্র দুটি রাখা হয়নি। গল্পের মজবুত ও বাস্তবিক ভিত তৈরি করতেই এ ছক এঁকেছেন নির্মাতা। তাঁর মতে, ব্যাচেলর বন্ধুরা বিভিন্ন কারণে সব সময়ই একসঙ্গে থাকেন না। সেটাই আগামী পর্বে দেখা যাবে।

default-image
বিজ্ঞাপন

এই সময় তিনি নিজের অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করে বলেন, ‘আমার ব্যাচেলর টাইমের অনেক বন্ধু আছে, যাদের অনেকের সঙ্গেই যোগাযোগ নেই। অনেকের ফোন নম্বর আমার কাছে নেই। তার মানে এমন নয়, সেই বন্ধুদের সঙ্গে আর দেখা হবে না। তারা কিন্তু যে যার মতো আছে। হয়তো দূরে আছে, ভবিষ্যতে কোনো এক সময় হয়তো তাদের সঙ্গে আবার দেখা হবে। সেই বাস্তবতাকে মাথায় রেখেই আমরা নতুন পর্ব শুরু করছি।’

default-image

তিনি জানান, এবারের গল্পে বন্ধুদের কোনো দ্বন্দ্ব দেখানো হয়নি। এত দিন একত্রে থাকার পর এখন থেকে তারা আলাদা থাকবেন। এমনও হতে পারে, তারা আবার একত্র হবেন।

ধারাবাহিকের শুরু থেকে যুক্ত ছিলেন অভিনেতা তৌসিফ মাহবুব। নতুন পর্বে তিনি থাকছেন না কেন? প্রকল্পসংশ্লিষ্ট একটি সূত্র থেকে জানা যায়, এই অভিনেতা প্রকল্প থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। অভিনেতা দাবি করেন, সবকিছুর শেষ থাকে। সেই দৃষ্টিকোণ থেকে তাঁর চরিত্রটি শেষ হচ্ছে ধরে নিতে হবে। তৌসিফ বলেন, ‘এ বিষয় নিয়ে এই মুহূর্তে কথা বলতে চাই না। বলতে গেলে অনেক কথা বলতে হবে।’

default-image

শামীম হাসান জানালেন, তিনি নিজেই নাটকটি থেকে সরে যাচ্ছেন। তিনি জানান, ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ও ‘ফ্যামিলি ক্রাইসিস’ নামে দুটি ধারাবাহিকে কাজ করছেন তিনি। পরেরটিতে পর্যাপ্ত সময় দিতে পারছিলেন না। তা ছাড়া ধারাবাহিক নাটক করতে গিয়ে শরীরের ওপরও ধকল যাচ্ছিল। তিনি বলেন, ‘আমি নির্মাতার সম্মতিতেই নাটক থেকে সরে এসেছি। বেশ ভালোভাবেই আমাকে বিদায় জানানো হয়েছে। এ ছাড়া আমার অন্য কোনো পথ ছিল না। কারণ, সিরিয়াল, একক নাটক একসঙ্গে সব করতে সমস্যা হয়ে যাচ্ছিল। পরিবারকে সময় দিতে পারছিলাম না। নিজের কাজগুলো করা হচ্ছিল না। আমার ফ্যামিলির সিদ্ধান্ত নিয়েই আমি নাটকটি ছেড়েছি।’

default-image

নির্মাতা কাজল আরিফিন জানান, ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’-এর নতুন এই কিস্তিতে থাকছে বেশ কিছু চমক। সেখানে ককটেল বাবু নামে একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন সুমন পাটোয়ারী। এ ছাড়া বোরহান নামে অন্য একটি চরিত্রে যোগ দিচ্ছেন নির্মাতা শরাফ আহমেদ। বাকি চরিত্রগুলো আপাতত ঠিক থাকছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0