‘আমার কি কেউ ছিল’ নাটকে প্রথমবারের মতো ছাত্রনেতার চরিত্রে অভিনয় করেছেন ফারহান আহমেদ জোভান। নাটকটি আজ আরটিভিতে প্রচারিত হবে। সম্প্রতি তিনি চরকির সিরিজে অভিনয় করেছেন। ক্যারিয়ার ও ব্যক্তিগত বিভিন্ন বিষয়ে কথা বললেন তিনি।

ছাত্রনেতার চরিত্রে অভিনয় করলেন, নাটকটি কী ধরনের?

একজন ছাত্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির পরে রাজনীতির সঙ্গে জড়িয়ে যান। সেই ছাত্রনেতার জীবনে উত্থান-পতন আছে, এমন একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি। গল্পটিতে মানবিক কিছু বিষয় রয়েছে।

default-image

বাস্তবে কি রাজনীতি করার ইচ্ছে হয়েছিল কখনো?

মাঝেমধ্যেই ঢাকার বাইরে শুটিংয়ে যাই। তখন দেখি অনেক মানুষ ঘিরে ধরে। তখন মনে হতো রাজনীতিতে যোগ দিলে খারাপ হয় না, ভালো সাপোর্ট পাওয়া যাবে। (হাসি)

অভিনেতা এবং নেতার মধ্যে পার্থক্য কী?

অভিনেতারা ক্যামেরার সামনে অভিনয় করেন, নেতারা... বাকিটা বলা যাবে না। কেউ বিতর্কিত ভাবতে পারে।

বিজ্ঞাপন
default-image

লকডাউনের এই সময়ে কি শুটিং করছেন?

না। ৫ এপ্রিল থেকে সব শুটিং বাতিল করেছি। এবার ভাইরাসটা মারাত্মক আকারে ছড়িয়েছে। পরিবারের সবার কথা চিন্তা করে আপাতত অভিনয় করছি না। লকডাউন শিথিল হলেও পরিস্থিতি বুঝে কাজ করব। কারণ শুটিংয়ে নিরাপদে কাজ করা যায় না।

বাসায় কীভাবে সময় কাটছে?

প্রতিদিন রোজা রাখছি, নামাজ পড়ছি। পরিবারের সঙ্গে ইফতারি করছি। সময়গুলো খুবই ভালো কাটছে।

আপনার পছন্দের কাজগুলো কী কী?

প্রচুর ঘোরাঘুরি ও মিউজিক করতে পছন্দ করি। এ ছাড়া জিমে যাই। পরিবারের সঙ্গে আড্ডা দিতে খুব ভালোবাসি। শুটিংয়ের কারণে পছন্দের কাজগুলো চাপা পড়ে যায়।

default-image

নিজের প্রচারিত কাজ দেখে কী উপলব্ধি হয়?

সত্য কথা বলতে, সব কাজ মনের মতো করতে পারি না। দর্শক যে ট্রেন্ডের গল্প পছন্দ করে, সেগুলোই করতে হচ্ছে। এ জন্য রোমান্টিক কমেডি বেশি করি। এখনকার বেশির ভাগ গল্পে অভিনয় করে শান্তি পাচ্ছি না।

পছন্দের বাইরের কাজ করতে গিয়ে সমস্যা হয় না?

খুব সমস্যা হয়। এমনও হয়, কিছু গল্প আমার পছন্দ হয়নি। কিন্তু আমার পছন্দের নির্মাতা কিংবা সহশিল্পী বলেছে যে এই গল্পে অভিনয় করলে বেশি ‘ভিউ’ হবে, দর্শক দেখবে। তখন বাধ্য হয়ে না করতে পারি না। কারণ তাঁরা আমার পছন্দের মানুষ।

তাহলে তো অনেক কাজ অনুরোধের কারণে করতে হয়?

আমাদের সিনিয়র শিল্পীরা বছরের পর বছর ধরে অনুরোধের কাজ করছেন। তাঁদের দেখে বড় হয়েছি। এবং বুঝতে পেরেছি, সবার মন রাখতে গেলে কাজে ছাড় দিতে হয়।

ক্যারিয়ারে কোনো আফসোস আছে?

এত কম বয়সে যা পেয়েছি, তাতে ক্যারিয়ার নিয়ে আমি খুশি। সাধারণত এত কম বয়সে অনেক বড় অভিনয়শিল্পীও সেভাবে এতটা জনপ্রিয় ছিলেন না। মোশাররফ করিম, আফরান নিশো, অপূর্ব—তাঁরাও অনেক জনপ্রিয়। কিন্তু কম বয়সীদের মধ্যে তুলনামূলক আমি, তৌসিফ (তৌসিফ মাহবুব) ও সিয়াম (সিয়াম আহমেদ) অনেক কিছু পেয়েছি।

বিজ্ঞাপন
default-image

চরকির ওয়েব সিরিজ ‘মরীচিকা’তে অনেক দিন পরে আপনার বন্ধু সিয়ামের সঙ্গে অভিনয় করলেন। তিনি এখন বড় পর্দার অভিনেতা। নিজেদের মধ্যে কোনো দূরত্ব মনে হয়েছে?

আমরা অনেক আগে থেকেই খুবই ক্লোজ। তিন দিন শুটিং করেছি। সময়গুলো ভালো কেটেছে। একসঙ্গে কাজ না করলেও আমাদের নিয়মিত কথা হয়।

কিছু অভিনেত্রীর সঙ্গে আপনাকে জড়িয়ে প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। এগুলো কীভাবে দেখেন?

নায়িকাদের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন আমি খুবই এনজয় করি। অনেকেই আছে ব্যাপারটা এনজয় করতে পারেন না। আমি এসব গুঞ্জন নিয়ে সব সময়ই মজা পাই। এটা সত্য যে যা রটে তা কিছুটা হলেও ঘটে। তবে আমার এমন কিছু ঘটনা রটেছে, যা একদমই সত্য নয়।

দেশের কোন অভিনেত্রীকে সহশিল্পী হিসেবে এক নম্বরে রাখবেন এবং কেন?

নুসরাত ইমরোজ তিশা। উত্তরটা তিশার অভিনয় ক্যারিয়ারই বলে দেয়। তিনি অনেক গুণী অভিনেত্রী। তাঁকেই আমি এগিয়ে রাখব।

default-image

আপনার বড় গুণ কী?

আমি কাজের প্রতি সিনসিয়ার থাকি। শুটিংয়ে থাকলে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত অন্য কোনো কিছুর দিকে মনোযোগ থাকে না।

কার অভিনীত নাটক দেখে ভালো লাগে?

যেগুলো আলোচনায় থাকে সবই দেখি। আফরান নিশো ভাইয়ের কাজ ভালো লাগে।

আপনি, মেহ্‌জাবীন চৌধুরী, তৌসিফ মাহবুবসহ বেশ কিছু অভিনয়শিল্পী জোটবদ্ধ হয়ে কাজ করছেন, এমন অভিযোগ শোনা যায়। সত্য কতটুকু?

এসব অভিযোগ সত্য নয়। আমরা ভালো বন্ধু। যোগাযোগ আছে। জোটবদ্ধ হয়ে কাজ করলে তো আমাদের একসঙ্গে দেখতেন। আমরা একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতাম!

default-image
টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন