বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পরদিনই বাকের রাস্তা পার হতে গিয়ে খানির বাবা লাল মিয়ার গাড়ির নিচে চাপা পড়ে। লাল মিয়া তাকে নিয়ে যান নিজের বাসায়। সেখানে সেবা পেয়ে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠে বাকের। কিন্তু স্মৃতিশক্তি হারিয়ে ফেলে। এদিকে বন্ধুকে খুঁজতে খুঁজতে সেই বাড়িতে গিয়ে হাজির হয় আবুল। সেই থেকে শুরু ত্রিভুজ প্রেমের গল্প।

এবার ৩০০ পর্বে পৌঁছল ধারাবাহিক নাটক ‘বাকের খনি’। রবি থেকে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় নাটকটি দেখানো হচ্ছে মাছরাঙা টেলিভিশনে। কাল সোমবার নাটকটির ৩০০তম পর্ব প্রচারিত হবে।

default-image

মেজবাহউদ্দিন সুমনের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন নজরুল ইসলাম রাজু। পর্ব পরিচালনায় রয়েছেন মাতিয়া বানু শুকু ও তাসদিক শাহরিয়ার খান। অভিনয় করেছেন মীর সাব্বির, সাজু খাদেম, তাসনুভা তিশা, নাবিলা ইসলাম, রোজী সিদ্দিকী, লুৎফর রহমান জর্জ, শিল্পী সরকার অপু, আনন্দ খালেদ প্রমুখ।

টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন