আগে সশরীর বাংলাদেশে এসেছিলেন সেলিম। এবার অনলাইনে তিনি ঢাকার একটি অনুষ্ঠানে যুক্ত হলেন। প্রকৃত অর্থে আড্ডাটি হয়ে গেছে। গত সপ্তাহে ভারতের মুম্বাইয়ের বাসা থেকে সিঁথির সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলেন সেলিম মার্চেন্ট। কাল শনিবার রাত ১০টায় ধারণকৃত আড্ডায় দেখা যাবে। তবে আড্ডা নিয়ে আগাম কিছু ধারণা দিয়েছেন সিঁথি। তিনি জানান, ৪০ মিনিটের অনুষ্ঠানে সেলিম মার্চেন্ট তাঁর সিনেমার গানের গল্প বলেছেন। কথা ছিল নিজের চারটি গানের অংশবিশেষ গেয়ে শোনাবেন কিন্তু শুনিয়েছেন সাতটি গানের অংশ।

উচ্ছ্বসিত সিঁথি বলেন, ‘গানের মানুষদের মধ্যে তিনি আমার খুবই প্রিয়। তাঁকে অনুষ্ঠানে পেয়ে কী যে আনন্দ পেয়েছি, বলে বোঝানো যাবে না। মাস ছয়েক আগে ভারতে গিয়েছিলাম। তাঁর সঙ্গে মুম্বাইয়ে দেখা করার কথা ছিল। কিন্তু তখন তিনি গানের কাজে রাজস্থানে ছিলেন। বাবার অসুস্থতার কারণে তাড়াতাড়ি ফিরে এলাম। সেবার আর তাঁর সঙ্গে দেখা হয়নি।’

আড্ডা দিয়ে কেমন লাগল? সিঁথি বলেন, ‘এত ভদ্র ও বিনয়ী মানুষ, হাসিমুখে নিজের কাজের জগতের নানা গল্প বলেছেন।’এক ভিডিও বার্তায় বাংলাদেশ প্রসঙ্গে সেলিম বলেছেন, ‘বাংলাদেশ আমার পছন্দের জায়গা। সেখানকার খাবার, মানুষের কালচার আমার ভালো লাগে।’ তিনি বাংলাদেশে গান করার ইচ্ছার কথাও প্রকাশ করেছেন।

দেশ-বিদেশের সংগীতশিল্পী, সংগীত পরিচালকদের কাজ ও অবসরের গল্প নিয়ে মাছরাঙা টেলিভিশন দেখায় সেলিব্রেটি শো ‘সিঁথির অতিথি’। প্রতি শনিবার রাত ১০টায় প্রচারিত হয় এটি। ভারতের কুমার শানু, কবিতা কৃষ্ণমূর্তি, সাধনা সারগাম, ঊষা উত্থুপ, অনুপ জালোটা, রূপঙ্কর বাগচী, শ্রীকান্ত আচার্য, ইমন চক্রবর্তীসহ অনেকে সিঁথির এই অনুষ্ঠানে অতিথি হয়ে এসেছেন।