বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

অভিনয় ক্যারিয়ারে অনেক ধারাবাহিক নাটকের প্রস্তাবই পেয়েছেন পায়েল। মনের মতো না হওয়ায় ফিরিয়ে দিয়েছেন। ‘জয়েন্ট ফ্যামিলি’তে কেন যুক্ত হলেন? এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নাটকটির নির্মাতার সঙ্গে অনেক দিন ধরে গল্প নিয়ে কথা হচ্ছিল। পরে রাজি হই। এটা একদম পরিবারকেন্দ্রিক নাটক। কয়েকটি পরিবারের একসঙ্গে থাকার গল্প। ঢাকা শহরে এখন কয়েকটি পরিবার এক হয়ে একই ফ্ল্যাটে বসবাস করে। তাদের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক, বোঝাপড়া, বর্তমান সময়ে পরিবারগুলোর সংকট, ভালোবাসায় জড়িয়ে পড়া, নগরের সমসাময়িক সম্পর্কের গল্পই তুলে ধরা হয়েছে। আমার কাছে মনে হয়েছে নিজের গল্প।’

default-image

বললেন নিজের গল্প, তার মানে কী আপনার পরিবারও আপনার বিয়ে দিতে উঠেপড়ে লেগেছে? প্রশ্ন শুনেই হাসলেন পায়েল। বললেন ‘ওই একটা বিষয়েই আমার সঙ্গে মিল নাই। কারণ বাড়িতে আমার বিয়ের কথা কেউ বলে না। বাড়িতে বিয়ে নিয়ে চাপ নেই।’
একক নাটকের বিপরীতে ধারাবাহিকে কাজের ক্ষেত্রে কোনো পার্থক্য কী টের পাচ্ছেন? পায়েল বলেন, ‘ধারাবাহিকে সময় বেশি দিতে হয়। এক ঘণ্টার একটি নাটকে দুই তিন দিন অভিনয় করলেই শেষ। এখানে চরিত্রের মধ্যে থাকতে হয়। সময়টা অনেক বেশি দিতে হয়। নাটকের কস্টিউমগুলো রেখে দিতে হয়েছে। এগুলো বিভিন্ন পর্বে লাগবে।’

default-image

নাটকটি পরিচালনা করেছেন রাফাত মজুমদার। এটি লিখেছেন মজুমদার শিমুল ও গোলাম সারোয়ার। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন দিলারা জামান, মনিরা মিঠু, শহীদুল আলম সাচ্চু, আবদুল্লাহ রানা, সুষমা সরকার, তৌসিফ মাহবুব, শাহেদ আলী সুজন, ফরহাদ লিমন, শাহবাজ সানী, নাফিজা মেঘলা।

টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন