বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

সব সময় গল্পনির্ভর কাজগুলোকেই প্রাধান্য দেন ফারিণ। চরিত্রে ভিন্নতা আনতে কখনো কাজের বুয়া, কখনো চায়ের দোকানদার, কখনো মাস্তান, কখনো অন্তঃসত্ত্বা নারী চরিত্রে হাজির হন। এই কাজগুলোতে চরিত্রায়ণের আলাদা একটা জায়গা থাকে। ফারিণ বলেন, ‘গল্পনির্ভর কাজগুলো আমার একটু ভালো লাগে। এখানে লুকগুলো ব্যতিক্রমী থাকে। নিজেকেই খুঁজে পাওয়া যায় না। কিন্তু বাইরে বের হলে সবাই আমার রোমান্টিক গল্পগুলোর প্রশংসা বেশি করে। ভক্তদের কাছে এসব নাটকের প্রশংসা শুনে অবাক লাগে।’

default-image

রোমান্টিক জুটি হিসেবে দর্শক কোন অভিনেতার সঙ্গে আপনাকে দেখতে পছন্দ করে বেশি? ফারিণ বলেন, ‘ভক্তরা আমার সঙ্গে জোভানকেই বেশি পছন্দ করে।’ মোশাররফ করিম, তাহসান খান, আফরান নিশো, জিয়াউল ফারুক অপূর্ব, জোভান, তৌসিফসহ অনেকের সঙ্গেই জুটি বেঁধেছেন ফারিণ। এই প্রসঙ্গে ফারিণ বলেন, ‘কার সঙ্গে জুটি বেঁধে অভিনয় করছি, সেটা আমি ভাবি না। সব সময় ভাবি কোন কাজটি করছি। সেটার গল্প, চরিত্র ভালো কি না।’ এই সময় তিনি আরও বলেন, ‘সিনিয়র–জুনিয়র সবার সঙ্গে পর্দা ভাগাভাগি করে ভিন্ন ভিন্ন অভিজ্ঞতার জন্ম দেয়। একেকজনের অভিনয়ের প্রকাশভঙ্গি, সংলাপ প্রক্ষেপন, অভিনয়রীতি একেক রকম। এটা আমার জন্য খুব সহায়ক হয়। কারণ, অনেক অভিনয়শিল্পীর সঙ্গে কাজ করে নিজের অভিনয়ে বৈচিত্র্য আনার চেষ্টা করি।’

default-image

শৈশব থেকেই নাটক তেমন দেখা হতো না। তবে ঈদের নাটকগুলো দেখার চেষ্টা করতেন। অন্য সময়ে বন্ধু বা পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে কোনো ভালো নাটকের নাম শুনলে সেটা দেখতেন। এখন সেই ফারিণ নাটকের নিয়মিত মুখ। এই অভিনেত্রী এখন ব্যস্ত ‘আমার বার্থ ডে’ নাটকের শুটিং নিয়ে। নাটকটির গল্প ও চিত্রনাট্য লিখেছেন আবার তাঁরই সহশিল্পী ফারহান আহমেদ জোভান। ফারিণ জানান, জন্মদিন ঘিরেই নাটকটির গল্প। আজ ১০ অক্টোবর নাটকটির শুটিং শেষ হবে। নাটকটি পরিচালনা করছেন সহিদ উন নবী।

টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন