default-image

ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘ক্লোজআপ কাছে আসার সাহসী গল্প’ প্রতিযোগিতায় নির্বাচিত সেরা তিন গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে ভালোবাসা দিবসের তিনটি নাটক। নির্বাচিত সেরা তিন গল্পকার নির্বাচিত হয়েছেন রিয়াজুল আলম শাওন, মেহরীন কবির ও হৃদিতা ইসলাম। ‘চিনিগুঁড়া প্রেম’, ‘আমি আকাশ পাঠাব’ ও ‘প্রতীক্ষা’ শিরোনামের নাটক তিনটি পরিচালনা করেছেন তরুণ তিন পরিচালক গোলাম কিবরিয়া ফারুকী, শাফায়েত মনসুর রানা ও ইমরাউল রাফাত। নাটকগুলো আজ রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে প্রচারিত হবে বাংলাভিশন টিভি চ্যানেলে।
রিয়াজুল আলম শাওনের গল্প থেকে ‘চিনিগুঁড়া প্রেম’ নামের নাটকটি তৈরি করেছেন গোলাম কিবরিয়া ফারুকী। এ নাটকের প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তাহসান ও জেনী। মেহরীন কবিরের গল্প থেকে নাটক তৈরি করেছেন শাফায়েত মনসুর রানা। ‘আমি আকাশ পাঠাব’ নামের এ নাটকে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন সংগীতশিল্পী জন কবির ও অভিনেত্রী অপর্ণা। হৃদিতা ইসলামের গল্প থেকে নাটক তৈরি করেছেন ইমরাউল রাফাত। ‘প্রতীক্ষা’ নামের এ নাটকে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিশা ও নাঈম।

default-image

ভালোবাসার পথ কখনোই সহজ হয় না। কোনো না কোনো বাধা এসে দেয়াল হয়ে দাঁড়ায়। ভালোবাসার মানুষটিকে কাছে পেতে তাই পেরোতে হয় নানা বাধাবিপত্তি কিংবা যেতে হয় সবার বিরুদ্ধে। ভালোবাসার মজাটা কিন্তু এখানেই। কারণ বাধার দেয়ালগুলো ভাঙতেই ভালোবাসা হয়ে ওঠে বেপরোয়া। ভালোবাসার টানে দুজনের ওপর ভর করে কাছে আসার সাহস। তৈরি হয় কিছু কাছে আসার সাহসী গল্প।
কাছে আসার সেই সব সাহসী গল্প নিয়ে ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে গত ১ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় ক্লোজআপ আয়োজিত ‘ক্লোজআপ কাছে আসার সাহসী গল্প’ প্রতিযোগিতা। ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের ওরাল কেয়ার ব্র্যান্ড ক্লোজআপ এই নিয়ে তৃতীয়বারের মতো কাছে আসার গল্প প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে। এবার ক্যাম্পেইনের নাম কিছুটা বদলে ‘কাছে আসার সাহসী গল্প’ করা হয়েছে। ভালোবাসাকে পূর্ণতা দিতে যেসব সাহসী এবং বেপরোয়া ঘটনা দুজন মানুষকে একে অন্যের কাছে আনে, সেই গল্পগুলোই আহ্বান করা হয়েছিল এই প্রতিযোগিতায়।

default-image

ক্যাম্পেইন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই সাড়া পড়ে যায় দেশজুড়ে। অসংখ্য কাছে আসার সাহসী গল্পে ভরে যায় পোস্ট অফিস আর মেইলের ইনবক্স। গত ২০ জানুয়ারি ছিল গল্প পাঠানোর শেষ তারিখ। তারপর শুরু হয় সেরা তিন গল্প নির্বাচন-প্রক্রিয়া। ক্যাম্পেইনকে সফল করতে ‘গায়ে হলুদ’ এবং ‘পুলিশ স্টেশন’ নামে দুটি ডিজিটাল ভিডিও তৈরি করা হয়েছিল।

বিজ্ঞাপন
টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন