default-image

স্ত্রী ও তিন সন্তানসহ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন অভিনয়শিল্পী আহসান হাবিব নাসিম। ৫ এপ্রিল তাঁর স্ত্রী রীমা হাবিব করোনায় আক্রান্ত হন। এরপর থেকেই তিনি বাসায় কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে, তাঁর কাছ থেকে করোনার সংক্রমণ ঘটেছে পরিবারের সদস্যদের মধ্যে।

আহসান হাবিব প্রথম আলোকে জানান, তাঁর স্ত্রী ৩ এপ্রিল শপিং করতে বাইরে গিয়েছিলেন। সন্ধ্যার পর বাসায় ফিরলে তাঁর জ্বর ও শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। চিকিৎসকের পরামর্শে রাতেই চিকিৎসা নেওয়া শুরু করেন। পরের দিন কিছুটা সুস্থ হলেও সন্ধ্যার পর থেকে আবারও শ্বাসকষ্ট, জ্বর ও কাশি বাড়তে থাকে। ৫ এপ্রিল করোনা পরীক্ষা করালে জানা যায়, তিনি করোনা পজিটিভ।

বিজ্ঞাপন
default-image

তিনি আরও জানান, তাঁর স্ত্রীর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ হওয়ার পর থেকেই কোয়ারেন্টিন মেনে চলছিলেন। কিন্তু ছোট শিশুদের জন্য স্ত্রীর পক্ষে পুরোপুরি কোয়ারেন্টিন মানা কঠিন হয়ে যাচ্ছিল। তিনি বলেন, ‘আমার ১০ বছরের যমজ দুটো সন্তান আছে। তাদের জন্য নিয়ম করে ঘরে আইসোলেশনে থাকা কঠিন হয়ে যাচ্ছিল। মাঝেমধ্যে স্ত্রীর সংস্পর্শে চলে আসে তারা। আবার আমাকে সবার দেখভাল করতে হচ্ছিল। আমার শারীরিক অবস্থা দেখে সন্দেহ হয় যে করোনায় আক্রান্ত হতে পারি। পরে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে, পরিবারের সবার পরীক্ষা করাই। গতকাল জানতে পারি, আমরা সপরিবার করোনা পজিটিভ। এখন সবাই নিয়মিত চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলছি।’

default-image

এই অভিনেতা জানান, তাঁর স্ত্রীর কিছু শারীরিক জটিলতা আছে। এ ছাড়া সবাই ভালো আছেন। নাসিম চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে বলেন, ‘আমাদের দুজনেরই (আহসান হাবিব নাসিম ও রীমা হাবিব) সিটি স্ক্যান করাতে হবে। এ ছাড়া ডাক্তারের পরামর্শে নিয়মিত চিকিৎসা নিচ্ছি।’

৩ এপ্রিল থেকেই সব ধরনের শুটিং বাতিল করেছেন নাসিম। করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন এই অভিনেতা। তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে সব সহকর্মী যদি সচেতন না হন, তাহলে আমরা বড় ধরনের ঝুঁকির মধ্যে পড়ব। যাঁরাই শুটিং করছেন, তাঁরা যেন পুরোপুরি সরকারি স্বাস্থ্যবিধি ও আমাদের সংগঠনের নীতিমালা মেনে কাজ করেন।’

default-image
বিজ্ঞাপন
টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন