default-image

‘সংশপ্তক’ নাটকের মালু চরিত্রের কথা নিশ্চয় সবার মনে আছে। অভিমান থেকে লম্বা সময় ধরে অভিনয় থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রেখেছেন মালুখ্যাত মুজিবুর রহমান দিলু। হঠাৎ করে আজ বুধবার সকালে তাঁর খবর পাওয়া গেল। তবে অভিনয়ের কোনো কাজে নয়, জানা গেল তিনি এখন ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। যোগাযোগ করা হয় তাঁর পরিবারের সঙ্গে। বড় ছেলে অয়ন রহমান জানালেন, তাঁর বাবাকে গতকাল মঙ্গলবার রাতে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।
অয়ন জানালেন, বাবার ফুসফুসে সমস্যা ধরা পড়েছে। চিকিৎসক জানিয়েছেন, ‘বাবার শরীরের বাঁ পাশের ফুসফুস ৭০ ভাগ আক্রান্ত হয়েছে। আর ডান পাশেরটা ১০ ভাগ। এদিকে কোভিড-১৯–এর উপসর্গও আছে। আজ টেস্ট করানো হয়েছে। কাল প্রতিবেদন হাতে পেলেই আমরা জানতে পারব কোভিড-১৯–এর অবস্থা।’

বিজ্ঞাপন

অয়ন বললেন, ‘বাবা নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত। গতকাল হঠাৎ করে শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। দ্রুত তাঁকে উত্তরার একটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তবে আমরা বাবাকে অন্য হাসপাতালের নেওয়ার কথা ভাবছি। দেখা যাক কী করা যায়। তবে গতকাল রাতে অবস্থা যা ছিল, আজ দুপুরে তা কিছুটা ভালো বলেছেন চিকিৎসক।’

default-image

স্ত্রী রানী রহমান, দুই ছেলে অয়ন রহমান, অতুল রহমান ও এক মেয়ে তানজিলা মুজিবকে নিয়ে ঢাকার উত্তরায় বসবাস করতেন। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্বাহী পরিচালক হিসেবে কর্মরত আছেন। মজিবুর রহমান দিলুর উল্লেখযোগ্য মঞ্চনাটক হচ্ছে ‘আমি গাধা বলছি’, ‘নানা রঙ্গের দিনগুলি’, ‘জনতার রঙ্গশালা’, ‘নীল পানিয়া’, ‘আরেক ফাল্গুন’, ‘ওমা কি তামাশা’ প্রভৃতি। এ ছাড়া বাংলাদেশ টেলিভিশনের জনপ্রিয় নাটক ‘তথাপি’, ‘সময় অসময়’ এবং ‘সংশপ্তক’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেন।

মন্তব্য করুন