default-image

জুটি বেঁধে নাচ করা প্রসঙ্গে আনিসুল ইসলাম বলেন, ‘একসময় আমাদের দেশে এ প্রথা ছিল। কিন্তু এখন কমে গেছে। সোহেল-রিয়া বা লিখন-নাদিয়া জুটি ভেঙে গেছে। এখন টিকে আছে কেবল শিবলী-নীপা জুটি। আমার কখনো কখনো আফসোস হয়, আমারও যদি এ রকম একজন নারী শিল্পীর সঙ্গে জুটি থাকত, তাহলে ভালো হতো। শুরুর দিকে অপি করিম, চাঁদনী, বিজরীদের সঙ্গে নাচ করেছি, কিন্তু জুটি গড়া হয়নি। অবশ্য এর একটা ভালো দিকও রয়েছে। যে কারও সঙ্গেই নাচ করার স্বাধীনতা রয়েছে। তা ছাড়া যাঁরা নাচ করেন, তাঁদের অনেকেই অন্য মাধ্যমেও সক্রিয়।’

default-image

বিটিভির নৃত্যানুষ্ঠান প্রসঙ্গে আনিসুল ইসলাম বলেন, ‘প্রতিবছরই ঈদ আয়োজনে বাংলাদেশ টেলিভিশন একটা নাচের অনুষ্ঠান করে। এবারও তা–ই হচ্ছে। সচরাচর বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের নাচের অনুষ্ঠানগুলোয় দেখা যায়, নাচ পরিবেশন করে বিভিন্ন জনপ্রিয় তারকা, যাঁরা নাচ জানেন না। কিন্তু আমাদের এই আয়োজনে তাঁরাই নাচ পরিবেশন করেছেন, যাঁরা মূলত নৃত্যশিল্পী। এত শিল্পী নিয়ে এমন একটি আয়োজনের দায়িত্ব বিটিভি আমাকে দিয়েছে এবং আমার ওপর আস্থা রেখেছে, এটা আমার জন্য অনেক সম্মানের।’

টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন