default-image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার একটি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনয়শিল্পী এস এম মহসিন। করোনায় ৭৩ বছর বয়সী এই অভিনয়শিল্পীর ফুসফুসের ৭০ শতাংশ সংক্রমিত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ওই হাসপাতালের আইসিইউর দায়িত্বে নিয়োজিত চিকিৎসক প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান।
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার আগে নাট্যজন এস এম মহসিন পাবনায় ‘অন্তরাত্মা’ ছবির শুটিং করেছেন। তিনি ছবির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলে জানালেন ছবিটির পরিচালক ওয়াজেদ আলী সুমন। ২ মার্চ তাঁর অংশের শুটিং শেষ হয়। পরদিন তিনি ঢাকায় ফিরে আসেন। ঢাকায় আসার পরই তাঁর করোনা সংক্রমণের খবর জানা যায়। পরিবারের সদস্যরা দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করান। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় জরুরি ভিত্তিতে গতকাল সোমবার হাসপাতাল বদল করা হয়।

বিজ্ঞাপন
default-image

হাসপাতালটির চিকিৎসক মিজানুর রহমান বলেন, ‘করোনা ছাড়া তাঁর আর কোনো ধরনের সমস্যা নেই। শারীরিকভাবে অন্য সব দিক থেকে তিনি ঠিকঠাক আছেন। এই মুহূর্তে অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৯৫-এর ওপরে আছে, অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে ঘণ্টায় ১৫ লিটার। খাওয়া-দাওয়াও স্বাভাবিকভাবে করছেন। তবে ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে আমরা খানিকটা চিন্তিত। আমাদের হাসপাতালে আনার পর থেকে তাঁর অবস্থার কোনো উন্নতি নেই, অবনতিও হয়নি।’  
এস এম মহসীন প্রায় চার দশক ধরে মঞ্চ ও টেলিভিশনে অভিনয় করছেন। অভিনয়ে প্রশংসনীয় অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০২০ সালে একুশে পদক পেয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন তিনি চাকরি করেছেন শিল্পকলা একাডেমিতে। পাশাপাশি শিক্ষকতাও করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি ২০১৮ সাল থেকে বাংলা একাডেমির একজন সম্মানিত  ফেলো।

টেলিভিশন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন