default-image

নিজেকে পরিপাটি সুন্দর রাখতে কে না চায়। আধুনিক স্মার্ট পুরুষেরাও চান তাই। পুরুষের সৌন্দর্যচর্চাকে আরও নিখুঁত করার জন্য বিভিন্ন প্রযুক্তির নানা যন্ত্র রয়েছে। সৌন্দর্যচর্চা কেন্দ্রগুলোতে এসব তো ব্যবহার করা হয়ই, চাইলে নিজে কিনে বাড়িতেও ব্যবহার করতে পারেন। বিভিন্ন বিপণি কেন্দ্রে এসব যন্ত্র পাওয়া যায়। এ ছাড়া অনেক অনলাইন দোকানেও এগুলো পাওয়া যায়। এখন দেখা যাক কোন যন্ত্র কোন কাজে ব্যবহার করা হয়।

*  হেয়ার ট্রিমার/ক্লিপার: বিদ্যুচ্চালিত এই যন্ত্রটি মূলত চুল ছাঁটার কাজে ব্যবহার হয়। যন্ত্রে যুক্ত নব দিয়ে দাঁতগুলো সমন্বয় করা যায়। আবার এর অগ্রভাগে আলাদা ছোট/বড় চুলের ক্লিপ লাগানো যায়। ট্রিমার দিয়ে যেমন অতি ছোট করে চুল ছাঁটা সম্ভব, আবার মাঝারি দৈর্ঘ্যের চুলও কাটা সম্ভব।

default-image

*  বিয়ারড ট্রিমার: বিদ্যুচ্চালিত এই যন্ত্র দিয়ে সাধারণত দাড়ি ছাঁটা (ট্রিম) হয়। তাই এর নাম বিয়ারড ট্রিমার। এটি দিয়ে অনেক সময় কানের পাশের এবং ঘাড়ের চুল ছোট করা হয়।

default-image

*  হেয়ার আয়রন: এটিও বিদ্যুতে চলে। এই যন্ত্র দিয়ে চুল সোজা করা হয়। চুল স্থায়ীভাবে সোজা করার ক্ষেত্রে রাসায়নিক পদার্থের পাশাপাশি এই ইস্ত্রি ব্যবহার করা হয়।

default-image

*  হেয়ার স্টিমার: মূলত পানি থেকে বাষ্প তৈরি করে এই যন্ত্র। যা চুলে ভাপ দেওয়ার কাজে লাগে। কেশচর্চার ক্ষেত্রে হেয়ার স্টিমারের প্রয়োজন হয়। এতে টাইমার থাকে, ফলে কতক্ষণ বাষ্প ছড়াতে হবে তা নির্ধারণ করা হয়।

*  হট অ্যান্ড কুল ফেসিয়াল স্টিমার মেশিন: বিদ্যুচ্চালিত এই যন্ত্র থেকে তৈরি হওয়া বাষ্প ফেসিয়ালের সময় সরাসরি মুখাবয়বে ভাপ হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

default-image

*  হেয়ার ড্রায়ার/ব্লোয়ার: চুল শুকানোর কাজ করে এ যন্ত্র। প্রয়োজন অনুসারে এর তাপমাত্রা কমানো ও বাড়ানো যায়। সেলুনে ব্যবহৃত হেয়ার ড্রায়ার বা ব্লোয়ার ১৬০০ থেকে ২০০০ ওয়াটের হয়ে থাকে।

*  ইলেকট্রিক ভাইব্রেটর: এগুলো সাধারণত ফেসিয়াল করার সময় মালিশের জন্য ব্যবহার হয়। এর কম্পন (ভাইব্রেশন) মালিশের কাজ করে।

*  ইলেকট্রিক ফেসিয়াল ব্রাশ: ফেসিয়ালের সময় মুখে স্ক্রাব মালিশের জন্য এই বৈদ্যুতিক ব্রাশটি ব্যবহার করা হয়।

*  ইলেকট্রিক ব্ল্যাক হেডস রিমুভার: ফেসিয়াল করার সময় এই যন্ত্রটি মুখের ত্বকের ব্ল্যাক হেডস তোলার কাজ করে।

default-image

*  ফেসিয়াল লেজার কিট: এটি একটি বিদ্যুচ্চালিত যন্ত্র, যা লেজার রশ্মি উৎপন্ন করে। ফেসিয়ালের সময় ব্রণের চিকিৎসায় এর ব্যবহার দেখা যায়।

*  হেয়ার লেজার কিট: এটিও একটি বিদ্যুচ্চালিত যন্ত্র। এটি লেজার রশ্মি তৈরি করে। মাথার তালুতে খুশকি বা অন্যান্য সমস্যা থাকলে এটি ব্যবহার করা যায়।

*  স্টেরিলাইজার: কাঁচি, ব্লেড-ব্লেজার ও অন্যান্য যন্ত্রপাতি জীবাণুমুক্ত রাখতে স্টেরিলাইজ বক্সে সংরক্ষণ করা হয়। এটিও বিদ্যুতের সাহায্যে চলে।

*  টাওয়েলওয়ার্মার: বিদ্যুচ্চালিত এই বাক্সে রাখলে তোয়ালে জীবাণুমুক্ত ও উষ্ণ থাকে।

লেখক: হেয়ারোবিকসের স্বত্বাধিকারী

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0