বিজ্ঞাপন
default-image

অনুলোম-বিলোম প্রাণায়াম

যেভাবে করবেন

ডান হাত তুলে ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি দ্বারা নাকের ডান দিকের ছিদ্র (পিঙ্গলা নাড়ি) বন্ধ করে নাকের বাঁ ছিদ্র (ইড়া নাড়ি) দিয়ে শ্বাস টেনে নিন। শ্বাস ফুসফুস ভরে নিতে হবে। এরপর অনামিকা বা মাধ্যমা দুটি আঙুল একসঙ্গে করে নাকের বাঁ ছিদ্র বন্ধ করে ডান পাশের ছিদ্র দিয়ে পুরোটা শ্বাস বের করে দিন। এরপর বাঁ ছিদ্র দিয়ে শ্বাস টেনে নিন। শ্বাস টানার পর আঙুল পরিবর্তন করে নাকের ডান ছিদ্র বন্ধ করে বাঁ ছিদ্র দিয়ে শ্বাস ছেড়ে দিন। আবার একইভাবে নাকের বাঁ ছিদ্র দিয়ে শ্বাস টেনে নিন। এই ধারাবাহিকতায় যাতে ভুল না হয়, সে জন্য মনে রাখবেন যখন শ্বাস ফুসফুসে ভরবেন, এরপর‌ আঙুল পরিবর্তন করে নাকের অন্য ছিদ্র দিয়ে শ্বাস ছাড়বেন। এভাবে চলতে থাকবে। অনুলোম-বিলোম প্রাণায়াম বিভিন্ন গতিতে আপনি করতে পারবেন। তবে ঘুমের ক্ষেত্রে প্রাণায়ামটি খুব ধীরগতিতে করবেন। শ্বাসের গতি এত ধীর করবেন যেন আপনার নিজের শ্বাসের শব্দ আপনি নিজেও শুনতে না পান। চেষ্টা করবেন ৮-১৬ সেকেন্ডে একবার শ্বাস নেওয়া এবং ৮-২৬ সেকেন্ড ধরে আবার ধীরে ধীরে শ্বাস ছাড়তে। আপনি চাইলে সময় আরও বাড়াতে পারেন। যখন অনুলোম-বিলোম করবেন, তখন সব মনোযোগ শ্বাসের গতিপথের দিকে দেবেন। বাঁ হাত কোলের ওপর স্থির রেখে শুধু ডান হাত দিয়ে অনুলোম-বিলোম প্রাণায়াম করবেন। অনুলোম-বিলোম প্রাণায়ামে বাঁ হাত ব্যবহার করবেন না।

সময়কাল

প্রতিদিন ঠিক ঘুমানোর আগে কমপক্ষে ৫ মিনিট করুন। ঘুমের সমস্যা বেশি হলে ১০-১৫ মিনিট করুন। ২১-২৮ দিন টানা করবেন। অনিয়মিত অভ্যাসে ঠিকমতো উপকার পাবেন না।

প্র অধুনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন