default-image

অফিসে বসে আছেন৷ হাতে রাজ্যের কাজ৷ অথচ কাজে মন বসছে না৷ হয়তো অফিসে আসার পথে তীব্র যানজট মেজাজটা বিগড়ে দিয়েছে, হয়তো বাসা থেকে বের হওয়ার আগে পরিবারের কারও সঙ্গে ঝগড়া হয়েছে৷ কিংবা অফিসের পরিবেশটাই দম বন্ধ লাগছে৷ সহকর্মীদের হাসি-ঠাট্টায় অন্য দিন হয়তো যেখানে আপনিও অংশ নিতেন, আজ হয়তো সেসবও বিরক্তিকর মনে হচ্ছে৷ শরীরটাকে অফিসের চেয়ারের সঙ্গে ধরে রাখলেও, মনটাকে ধরে রাখা কঠিন৷ কী করবেন এ ক্ষেত্রে?
এ প্রসঙ্গে কথা হলো গ্রো এন এক্সেলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও মুখ্য পরামর্শক এম জুলফিকার হোসেনের সঙ্গে৷ তিনি বলেন, ‘কাজের সময় অফিসে বসে অন্য সমস্যা নিয়ে ভাবলেই তো সেসব সমাধান হয়ে যাবে না৷ ব্যক্তিগতভাবে আমি এসব ক্ষেত্রে কিছুক্ষণ চুপচাপ বসে থাকি৷ ঠান্ডা মাথায় কাজ করতে চেষ্টা করি৷ অফিসে অন্য বিষয় নিয়ে না ভাবাই ভালো৷’
মনের সঙ্গে কুস্তি না লড়ে আপনি বরং সহজ কিছু উপায় অবলম্বন করতে পারেন৷ জেনে নিন এ-সম্পর্কিত কিছু টিপস৷
 প্রথমেই আপনার কাজগুলোকে ভাগ করে একটা কাগজে টুকে নেওয়া প্রয়োজন৷ অনেক কাজ একসঙ্গে মাথায় ঘুরপাক খেতে থাকলে সবকিছু আরও বেশি গুলিয়ে যায়৷ সব কাজ একসঙ্গে করার চেষ্টা না করে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে একটা একটা করে কাজ শেষ করুন৷
 পাঁচ মিনিটের একটা বিরতি নিতে পারেন৷ অফিসের বাইরে একটু খোলা বাতাস আপনার মানসিক অবস্থাটা বদলে দিতে পারে৷ একটু হাঁটাহাঁটি করে এসে এরপর কাজে মন দিন৷
 প্রতিিট কাজের জন্য মনে মনে একটা সময় বেঁধে নিন৷ কাজ থেকে পালানোর চেষ্টা করবেন না৷ ‘এই কাজটা আজ না করে কাল করব’-এমন ভাবনা আপনার অন্য কাজগুলোকেও ক্ষতিগ্রস্ত করবে৷ মানসিক চাপটা বাড়বে৷
 হাতের কাছে পানি রাখুন৷ প্রয়োজনে গলাটা একটু ভিজিয়ে নিন৷ পকেটে চকলেটও রাখতে পারেন৷ কাজের ফাঁকে একটা চকলেট মুখে পুরে দিলে তা হয়তো আপনার মনকে প্রফুল্ল করবে৷
 সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটে ঢুঁ মারা আপাতত বন্ধ রাখুন৷ আপনি হয়তো ভাবছেন, ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দিলে কিংবা বন্ধুদের প্রোফাইলে একটু চোখ বুলিয়ে নিলে আপনি ভালো বোধ করবেন৷ আদতে এটি আপনার কাজের মনোযোগ নষ্ট করবে৷
 অফিসে আশপাশের কোলাহল হয়তো আপনাকে বিরক্ত করছে৷ সুযোগ থাকলে নিরিবিলি কোথাও বসুন৷
 অফিসে আপনার টেবিল গুছিয়ে রাখুন৷ সে ক্ষেত্রে কাজগুলোও গোছানো হবে৷
 দেির করে অফিসে পৌঁছলে স্বাভাবিকভাবেই মানসিক অবস্থা কিছুটা বিপর্যস্ত থাকে৷ অতিরিক্ত যানজটের সময়টা এড়িয়ে, প্রয়োজনে একটু সকাল-সকাল অফিসে যাওয়ার অভ্যাস করুন৷
 নিজেকে নিজে পুরস্কৃত করুন৷ ‘এই কাজটা শেষ করেই এক কাপ চা খাব কিংবা বাইরে একটু হাঁটতে যাব’-এভাবে নিজেকে অনুপ্রািণত করুন৷
 বাসা বা অফিসে আপনার সমস্যা নিয়ে অনেক সময় আশপাশে সহকর্মীদের মধ্যে কানাঘুষা চলতে থাকে৷ এসবে কান না দিয়ে নিজের কাজে মন দিন৷
 সমস্যাটি যদি খুবই গুরুতর হয়, যেমন খুব কাছের কোনো মানুষের অসুস্থতা বা আকস্মিক দুর্ঘটনা—সে ক্ষেত্রে সহকর্মীদের সাহায্য নিয়ে এক-দুই দিন ছুটি কাটিয়ে আবার কাজে ফিরতে পারেন৷

বিজ্ঞাপন
প্র অধুনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন