বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

যে কারণে চওড়া হয়

বাড়ন্ত বয়সে হাত–পায়ের গঠনে পরিবর্তন হওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু একটা নির্দিষ্ট সময় পর শারীরিক বৃদ্ধি অনেকটা বন্ধ হয়ে যায়। তবে পায়ের পাতা ও আঙুল হঠাৎ পাশে বেড়ে যাওয়ার একটি অন্যতম কারণ বয়স বাড়তে থাকা। বয়স বাড়তে থাকায় পায়ের টিস্যু ও পেশির স্থিতিস্থাপকতা কমতে থাকে।

এ ছাড়া বাড়তি ওজন পায়ের পাতা ও আঙুলের গঠন চওড়া হওয়ার অরেকটি কারণ। অতিরিক্ত ওজনে পায়ের টিস্যু ও লিগামেন্টে চাপ পড়ে। ফলে পা অনেকটা পাশে ছড়িয়ে যায়। এতে পায়ের হাড় বেড়ে যায় এমন নয়।

আবার ছোটবেলা থেকে জুতা পরার অভ্যাস থাকলে অনেক সময় পায়ের মাপ ঠিক থাকতে সাহায্য করে। জুতার আকার ও মাপ পায়ের আকার নির্ধারণ করতে সাহায্য করে। পাশে বন্ধ জুতা পরলে পায়ের দুই পাশ ও আঙুল একটা চাপের মধ্যে থাকে। এতে পা ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা কম।

আবার যাঁদের ওজন অনেক বেশি ও উঁচু হিলের জুতা দীর্ঘদিন ব্যবহার করছেন, তাঁদের পায়ের আকার পরিবর্তন হতে পারে। দিনের বেশির ভাগ সময় খালি পায়ে থাকলে পায়ের আকার পরিবর্তন হয়ে চওড়া দেখাতে পারে। যদিও খালি পায়ে ঘাসে বা মাটিতে হাঁটা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। তবে মেঝেতে অতিরিক্ত খালি পায়ে হাঁটা ঠিক নয়। এ ছাড়া ডায়াবেটিস বা পায়ে সংক্রমণের মতো সমস্যা থাকলে পায়ের আকার বাড়তে পারে।

সমাধান ব্যায়াম ও মালিশে

প্রতিদিন পায়ের আঙুলের দিক থেকে গোড়ালি পর্যন্ত মালিশ করতে পারেন। দুই হাত দিয়ে পায়ের দুই পাশ থেকে চেপে চেপে মালিশ করা উপকারী। এতে পায়ে রক্ত সঞ্চালনও ভালো হয়। ২–৩ সেটে মোট ৩০ বার করা যাবে।

আঙুল খুব বেশি ছড়িয়ে গেলে নরম ও মাঝারি মোটা রাবার ব্যান্ড দিয়ে আঙুলগুলো বেঁধে রাখা যায়। এতে আঙুল এক জায়গায় সুগঠিত আকারে থাকবে।

পায়ের যত্নে পেডিকিউর করাও একধরনের পায়ের ব্যায়াম। কারণ, পেডিকিউরের সময়ে পায়ে মালিশ করা হয়, যা পা সরু রাখতে সাহায্য করে।

আরও পরামর্শ

  • সরু পায়ের জন্য বন্ধ জুতা ব্যবহার করা ভালো। জুতায় পায়ের গোড়ালির অংশের বাড়তি ইনসোল ব্যবহার করতে পারেন।

  • মোজা ছাড়া জুতা পরলে পায়ের আকারে পরিবর্তন আসতে পারে।

  • জুতার মাপ হতে হবে একেবারে পায়ের মাপের। পায়ের আকারের চেয়ে ছোট বা বড় জুতা পা ও আঙুলের আকার বাড়ায়।

প্র অধুনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন