বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আলোকসজ্জা

default-image

উৎসব মানেই আলোকসজ্জা। আর উজ্জ্বল আলোকবাতি ছাড়া বছর শেষের আয়োজন ভাবাই যায় না। ঘরে হোক বা ছাদে—সোনালি, হলুদ বা পছন্দের রঙের মরিচবাতি বা বাল্ব দিয়ে সাজিয়ে ফেলুন। এ ছাড়া রাখতে পারেন ল্যাম্পের আলো। ছাদে হলে কোনায় কোনায় এসব আলো জ্বালাতে পারেন। বাসার মধ্যে হলে রঙিন আলো দিয়ে ঘর সাজাতে পারেন। বারান্দা বা বসার ঘরে রাখতে পারেন স্ট্রিং লাইটস, লন্ঠন, টেবিল ল্যাম্প ও সুগন্ধি মোমবাতি।

অন্য সাজ

ঘরে নতুনত্ব আনতে সাজে আনতে পারেন পরিবর্তন। সোফার কুশন কভার, পর্দা, বিছানার চাদরগুলো পরিবর্তন করে নিন। এসব একটা রংকে থিম ধরে সাজাতে পারেন। খাবার টেবিলেও রাখুন নতুন বছরের আবহ। বাসনকোসন ও রানারের রং হতে পারে ঘর সাজানোর থিমের সঙ্গে মিলিয়ে। কাচের বয়ামে এক তোড়া ফুল রেখে দিন, সঙ্গে কিছু মোম। ঘরের ভেতর বা ছাদের একটি কোনায় ফিতা ও হ্যাপি নিউ ইয়ার বেলুনে সাজিয়ে নিতে পারেন। আজকাল প্লাস্টিকের সাজানো বিভিন্ন ইংরেজি অক্ষর কিনতে পাওয়া যায়, যাতে বাতাস ভরে নিলেই ফুলে উঠবে। সেসবও ঝুলিয়ে দিতে পারেন।

সহজে তৈরি করা খাবার

default-image

আনন্দ উপভোগের জন্য শুধু রান্নাঘরে পড়ে থাকলেই চলবে না। তাই সহজেই বানানো যায়, এমন কয়েকটি খাবার তৈরি করে ফেলুন। আবার যেহেতু শীতকাল, তাই বিভিন্ন স্ন্যাকস বানিয়ে রাখুন। সবাই এলে শুধু ভেজে নেবেন। চিকেন নাগেট, চিকেন বল, আলুর চপ, শাশলিক, স্প্রিং রোল, পাস্তা, চাওমিন ইত্যাদি রাখতে পারেন। আর রাতের খাবারে রাখতে পারেন বিরিয়ানি। আবার বারবিকিউ পার্টি করলে রুটি, নান বা পরোটা রাখুন। মিষ্টিমুখ করতে পুডিং, কাপ কেক বা ব্রাউনি রাখতে পরেন।

সেলফি কর্নার

নতুন বছর আসার এই উৎসবে সেলফি বা ছবি তো তোলা হবেই। কিন্তু তার জন্য চাই সাজানো জায়গা। তাই তৈরি করে নিন সেলফি কর্নার। রাখতে পারেন ২০২২ লেখা ফ্রেম, বেলুন আর আলোকসজ্জা।

আলাদা আয়োজন

default-image

গানবাজনারও আয়োজন করতে পারেন। বন্ধুদের মধ্যে কেউ গিটার বা অন্য বাদ্যযন্ত্র বাজাতে জানলে অবশ্যই পরিকল্পনার মধ্যে রাখুন। যেহেতু ছাদে ডিজে অনুষ্ঠানে বিধিনিষেধ থাকতে পারে, তাই ঘরোয়া আয়োজনে গান রাখতে পারেন।

খেলার আয়োজন ও পুরস্কার

রাখতে পারেন মজার সব খেলার ব্যবস্থা, যার জন্য থাকবে পুরস্কার। এতে উৎসবে আনন্দের আমেজ পাবেন। উপহার পেয়ে অতিথিরা খুশি হবেন।

প্র অধুনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন