বিজ্ঞাপন

ঘরের বাইরে ঘর

l কোরবানির কাজে ব্যবহৃত সামগ্রী, যা পরে আর কাজে লাগানো যাবে না, তা স্থানীয় ব্যবস্থা অনুসারে যথাস্থানে ফেলতে হবে।

l সিঁড়ি বা লিফটে রক্ত পড়লে সাবান-পানি দিয়ে পরিষ্কার করুন।

l ঘরের বাইরের পরিচ্ছন্নতা প্রতিটি পরিবারের পক্ষ থেকেই তদারক করতে হবে, যাঁরা ওই একই দালানের বাসিন্দা। নির্দিষ্ট কাউকে এর দায়িত্ব দিলেও সবারই খেয়াল রাখতে হবে, দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি কাজগুলো সঠিকভাবে সম্পাদন করছেন কি না।

l পশুপালনে ব্যবহৃত পানি বা খাবারের পাত্র পরবর্তী বছর ব্যবহার করবেন মনে করলে তা সাবান-পানি দিয়ে পরিষ্কার করুন। সংরক্ষণ করার আগে সম্ভব হলে রোদে দিন।

সুস্থ-সতেজ থাকুন আপন অন্দরে

l মেঝেতে রক্ত পড়লে প্রথমে সাবান-পানি (প্রথম দফায় কুসুম গরম পানি নেওয়া ভালো) দিয়ে পরিষ্কার করে এরপর জীবাণুনাশক দ্রবণ দিয়ে পুনরায় মুছে নিন।

l যেখানে খাবার জিনিস রাখা হয়, সেখানে রক্ত পড়লে সাবান-পানি দিয়ে পরিষ্কার করার পর দুর্গন্ধ দূর করে সতেজতা আনতে লেবুর রস বা সিরকা মিশ্রিত পানি দিয়ে পুনরায় মুছে নিন।

l মাংসের পাত্রের জন্য অধিক ক্ষারযুক্ত সাবান বেছে নিন। সঙ্গে যোগ করতে পারেন ছাই। তবে ধোয়ার আগেই চর্বি চেঁছে ফেলে দিতে চেষ্টা করুন, তাহলে পরবর্তীকালে পানি নির্গমন নল বা পাইপে চর্বি আটকে যাওয়ার আশঙ্কা কমে। পাত্র, এমনকি হাত ধোয়ার জন্য কুসুম গরম পানিও ভালো।

l কাটাকুটির কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জামও একই পদ্ধতিতে পরিষ্কার করে শুকিয়ে রাখুন। দীর্ঘ সময়ের জন্য সংরক্ষণ করতে চাইলে ছোট কাপড় বা তুলায় তেল নিয়ে সেগুলোতে ঘষে এরপর শুকনা কাপড়ে মুড়িয়ে রাখুন।

l ঘরে সুগন্ধি ফুল রাখতে পারেন ঈদের সময়টায়। এতে কোনো ধরনের বাজে গন্ধ এড়িয়ে চলা সহজ হবে।

আরও যা

l ময়লার বালতিতে মাত্র একবার ব্যবহারোপযোগী পলিব্যাগ বিছিয়ে রাখলে বালতির গায়ে ময়লা আটকে রইবে না।

l ফ্রিজের পানি নির্গমন অংশ বা কাছাকাছি মেঝেতে পানি জমছে কি না, খেয়াল রাখুন ঈদের পরের কয়েকটা দিনও। পানি জমলে দ্রুত পরিষ্কার করুন, নইলে মশা জন্মাতে পারে। মেঝে পরিষ্কার করতে তেমন পদ্ধতিই অবলম্বন করুন, মেঝেতে রক্ত পড়লে যেমনটা করেছিলেন।

প্র অধুনা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন