কয়েকজন বলিউড তারকা তাঁদের ছবি ওটিটিতে তুলে ধরতে নারাজ। অনলাইনে তাঁদের ভরসা নেই। আশা–ভরসার কেন্দ্রবিন্দু শুধুই সিনেমা হল।
কয়েকজন বলিউড তারকা তাঁদের ছবি ওটিটিতে তুলে ধরতে নারাজ। অনলাইনে তাঁদের ভরসা নেই। আশা–ভরসার কেন্দ্রবিন্দু শুধুই সিনেমা হল।

লক্ষ্মী বম্ব

default-image

অক্ষয় কুমার অভিনীত লক্ষ্মী বম্ব ছবির মুক্তি নিয়ে চলছে জল্পনাকল্পনা। ডিজনি-হটস্টারে ছবিটির মুক্তির কথা ঘোষণা হয়েছিল। শোনা গিয়েছিল, ৯ সেপ্টেম্বর অক্ষয়ের জন্মদিনে এটি অনলাইনে মুক্তি পাবে। কিন্তু এখন এর মুক্তি নিয়ে জন্ম নিয়েছে ধোঁয়াশা। নির্মাতারা এ ছবি বড় অঙ্কের বিনিময়ে হটস্টারকে বিক্রি করেছেন। কিন্তু অনেকের মতে, অনলাইনে অক্ষয়ের ছবিটি মুক্তি পেলে বরবাদ হয়ে যাবে। এ নিয়ে নেটিজেনরা রীতিমতো আন্দোলন করছেন। তাই নির্মাতারা লক্ষ্মী বম্ব–এর মুক্তি নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ভাবছেন।

বিজ্ঞাপন

৮৩

default-image

কবির খান প্রযোজিত ও পরিচালিত ৮৩ ছবিকে ঘিরে শুরু থেকে প্রত্যাশা তুঙ্গে। ১৯৮৩ সালে ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারতের ঐতিহাসিক জয়কে ঘিরে এই ছবিটি নির্মাণ করেছেন কবির খান। ভারতের এই বিশ্ব জয়ের পেছনে মূল নায়ক ছিলেন দলের সাবেক অধিনায়ক কপিল দেব। বলিউড তারকা রণবীর সিংকে এই ছবিতে দেখা যাবে কপিল দেবের ভূমিকায়। আর তাঁর স্ত্রী রোমির চরিত্রে আছেন দীপিকা পাড়ুকোন। বিয়ের পর রণবীর আর দীপিকা একসঙ্গে প্রথম পর্দায় আসতে চলেছেন। ১০ এপ্রিল ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু লকডাউনের কারণে তা সম্ভব হয়নি। তবে এই ছবির নির্মাতারা করোনার পাততাড়ি গোটানোর অপেক্ষায়। বড় পর্দাতেই তাঁরা ছবিটি আনতে চান। এ বছর বড়দিনে ৮৩ বড় পর্দায় আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্মাতারা।

বিজ্ঞাপন

সূর্যবংশী

default-image

রোহিত শেট্টি আর অক্ষয় কুমার একসঙ্গে প্রথমবার পর্দায় আসতে চলেছেন সূর্যবংশী ছবিতে। তাই স্বাভাবিকভাবে এই ছবি ঘিরে সিনেমাপ্রেমীদের উত্তেজনা তুঙ্গে। নির্মাতারা কোনোভাবেই চান না ছবিটিকে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আনতে। সূর্যবংশী ছবিতে অক্ষয়ের বিপরীতে আছেন ক্যাটরিনা কাইফ। ২৪ মার্চ এই ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে তা আটকে যায়। আপাতত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে অক্ষয় অভিনীত সূর্যবংশী এ বছর দীপাবলিতে বড় পর্দায় মুক্তি দেবে। যদি তত দিনেও সিনেমা হলের পর্দা না ওঠে, তাহলে হয়তো আসবে নতুন ঘোষণা।

বিজ্ঞাপন

রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই

default-image

প্রতিবছরের মতো এবারও ঈদে সালমান খান তাঁর মশালাদার ছবি রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই নিয়ে সবার সামনে আসার জন্য প্রস্তুত ছিলেন। কিন্তু করোনা নিরাশ করেছেন সালমানপ্রেমীদের। রাধে ছবির নির্মাতারা এবং সালমান কেউই চান না ডিজিটাল মাধ্যমে এই বহুল প্রতীক্ষিত ছবিটি মুক্তি পাক। এখনো ছবিটির প্রায় ১০ দিনের শুটিং বাকি। জানা গেছে, অক্টোবরের শেষে বা নভেম্বরের শুরুতে প্রভু দেবা পরিচালিত এই ছবির শুটিং শুরু হবে। আগামী বছরের জানুয়ারিতে এ ছবি সিনেমা হলে মুক্তি দেওয়ার আশা প্রকাশ করেছেন নির্মাতারা। যদি তত দিনেও করোনা বিপর্যয় না কাটে, তাহলে ছবির মুক্তি পিছিয়ে যেতে পারে আগামী বছরের ঈদুল ফিতর পর্যন্ত। তবুও সালমান অনলাইনে আসবেন না।

মন্তব্য পড়ুন 0