default-image

ঘেমে যাচ্ছে হাতের তালু। গলা শুকিয়ে যাচ্ছে। কথা জড়িয়ে আসছে। বুকের ভেতর যেন হাপরের ওঠানামা। সে রাজি হবে কি? যদি ‘না’ করে দেয়!

পছন্দের মানুষকে প্রস্তাব দেওয়ার সময় এমন অবস্থার মুখোমুখি হননি, এ রকম মানুষ কিন্তু কমই আছে। বন্ধুমহলে স্মার্ট, আচার-আচরণ, কথাবার্তায় দারুণ সপ্রতিভ ব্যক্তিটিও প্রেম বা বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে রীতিমতো স্নায়ুচাপে পড়েন। কে জানে, ওখানেই বোধ হয় প্রেমের সৌন্দর্য!

আবার অনেকে আছেন, এই অবস্থার স্নায়ুচাপটুকু নিতে পারেন না বলে কোনো দিন হয়তো প্রিয়জনকে প্রিয় কথাটি বলেই উঠতে পারেন না। কিংবা বড্ড দেরি হয়ে যায়। এতই দেরি যে দুজনার দুটি পথ চলে যায় দুই দিক। হয়তো উভয়েই বুকে পুষে রাখেন ঠিক সময়ে ঠিক কথাটি না বলে দেওয়ার যন্ত্রণা। ঠিক এমনই এক বিচ্ছিন্নতা খুব কাছ থেকে দেখেছিলেন মার্কিন সাংবাদিক-সাহিত্যিক জন মাইকেল ও’লফলিন। যেন দেরি না হয়ে যায় প্রেম বা বিয়ের প্রস্তাবে, নিজস্ব মানুষটির সঙ্গে অনন্তকাল পথচলার সম্ভাবনা নষ্ট হয়ে না যায় যেন, তাই প্রপোজাল ডে বা প্রস্তাব দিবস নামে, দিবসের যাত্রা শুরু করেন।

আজ ২০ মার্চ, প্রস্তাব দেওয়ার দিন। যাঁরা এখনো পছন্দের মানুষটিকে বলে উঠতে পারেননি, তাঁদের জন্য রইল কবি নির্মলেন্দু গুণের এই পঙ্‌ক্তি, ‘আবার যখনই দেখা হবে, আমি প্রথম সুযোগেই বলে দেব স্ট্রেটকাট: “ভালোবাসি”’। আজকের দিনে পঙ্‌ক্তিটার বাস্তবায়ন কিন্তু করতেই পারেন।

ডেজ অব দ্য ইয়ার অবলম্বনে

বিজ্ঞাপন
প্র ছুটির দিনে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন