default-image

ময়দা, মাখন, পনিরসহ আরও কিছু উপকরণ মিশিয়ে বানানো হয় ক্রঁসা। দেখতে অর্ধচন্দ্রাকৃতি খাবারের বাইরের দিকটা মচমচে আর ভেতরটা বেশ নরম। নাশতার টেবিলে বেশ সমাদৃত। যতটুকু জানা যায়, পশ্চিম ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়ায় জন্ম এ সুস্বাদু খাবারের। ফ্রান্স ও পশ্চিম ইউরোপে খাবারটি খুবই জনপ্রিয়। তবে হালে এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে আমাদের দেশেও। সকালে কিংবা বিকেলে চা–কফির সঙ্গে মজাদার ক্রঁসার উপস্থিতি প্রিয় মুহূর্তকে দারুণ জমিয়ে দিতে পারে। শিশুদের টিফিন হিসেবেও কিন্তু মন্দ নয়।

আজ ৩০ জানুয়ারি, ক্রঁসা দিবস। ন্যাশনাল ডে ক্যালেন্ডারের তথ্যানুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিবছর ২০০৬ সাল থেকে পালিত হয়ে আসছে বিচিত্র এই দিন।

ন্যাশনাল ডে ক্যালেন্ডার অবলম্বনে

বিজ্ঞাপন
প্র ছুটির দিনে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন