default-image

পুরোনো ভবন, পরিত্যক্ত স্থাপনা থেকে বনবাদাড়—এসব জায়গা ঘুরে তিনি সংগ্রহ করেন বট ও বটজাতীয় গাছ। কোনো একটি প্রজাতি চোখে পড়লেই যত্নে তুলে নেন কয়েকটি ডাল বা গোড়াসুদ্ধ গাছ। এরপর পরিচর্যায় বেড়ে তোলেন নতুন গাছ। উদ্দেশ্য একটাই, বটজাতীয় গাছের জাত জিইয়ে রাখা। এভাবে ৮০ প্রজাতির গাছ সংগ্রহ করেছেন আবদুল্লাহ আল হারুন। তার মধ্যে ২০-২৫টি বিরল প্রজাতির বট। এসব বট সংরক্ষণ করেছেন ছাদবাগানে।

আবদুল্লাহ আল হারুন চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল কুদ্দুসের বড় সন্তান। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০০৪ সালে বাংলায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নিয়ে ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা পদে কর্মজীবন শুরু করেন। একসময় চিন্তা করেন পেশাগত কাজের পর প্রকৃতি আর বৃক্ষ রক্ষার। সে চিন্তা থেকে সংগ্রহের শুরু। কিন্তু বটগাছ কেন?

আবদুল্লাহ হারুন বললেন সে কারণ, ‘আমার সংগ্রহের শুরু ২০১০ সালে। তখনই ছাদবাগান শুরু করি। বটের ফল পাখিদের উৎকৃষ্ট খাবার। তা ছাড়া সবুজায়নের জন্য বটগাছের বিকল্প নেই। অথচ এই বটই দিনে দিনে বিলুপ্তির পথে। বটগাছের কাঠে আসবাব বানানো যায় না, এই অজুহাতে মানুষ বটগাছ রোপণ করে না। এ জন্যই মূলত আমি বটগাছ সংগ্রহ শুরু করি।’

বিজ্ঞাপন

সারা বিশ্বে প্রায় ৮৫০ প্রজাতির বট আছে। এগুলোর উপপ্রজাতি আছে কয়েক হাজার। আবদুল্লাহ আল হারুন জানালেন, তাঁর সংগ্রহে কাঁঠালি বট ও এর দুটি উপপ্রজাতি, ফাইকাস আলটিসিমা ও এর দুটি উপপ্রজাতি, চায়না বট, ঝিরবট ও এর ১০টি উপপ্রজাতি, আম বট ও এর দুটি উপপ্রজাতি, ফাইকাস ইনজেন্স, ফাইকাস কর্ডাটা, পাকুড় বা ফাইকাস রুম্পি, ফাইকাস সুপারভা, ফাইকাস জেনিকুলেটা, ফাইকাস সাবপিসোকার্পা, ফাইকাস তাসজালা, অশ্বত্থ, টাইগার বার্ক ফাসকাস, ফাইকাস কার্টাইপস, হস্তীকর্ণ ডুমুর, ফাইকাস টিংটোরিয়া, ফাইকাস ডোরাপসি, ফাইকাস গোল্ডেন পান্ডা, মাদ্রাজি বট বা ফাইকাস এমপ্লিসিমা ও এর দুটি উপপ্রজাতি, ফাইকাস তালবটি, যজ্ঞডুমুর বা ফাইকাস রেসিমুসা, কাঠডুমুর বা ফাইকাস হিসপিডা, কালীবট, মিসরীয় ডুমুর, দেবলীনা বট, লিচুপাতা বট, এর দুটি উপপ্রজাতিসহ প্রায় ৮০ প্রজাতির বটগাছ আছে। যেখানে বিরল প্রজাতির আছে ২০-২৫টি।

আবদুল্লাহ আল হারুনসহ বেশ কয়েকজনের ফেসবুকে একটি গ্রুপ আছে শুধু বটপ্রেমীদের জন্য। বিডি ফাইকাস লাভার্স নামের গ্রুপটিতে সদস্যরা কেউ একজন বিরল প্রজাতির গাছ পেলে জানান। আলোচনা করেন। হারুন বলেন, ‘এতে করে বটের জাত ছড়িয়ে দিয়ে বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা করা যায়। আমরা অঙ্গজ প্রজননের মাধ্যমেও বটের বিলুপ্তপ্রায় প্রজাতি ছড়িয়ে দিতে চাই।’

প্র ছুটির দিনে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন