ছাত্রজীবনে যেমন ভালো করার তাগিদ ছিল, শিক্ষকজীবনেও সেটা ধরে রাখলেন। বিকেল চারটায় স্কুল ছুটির পর অনেক সহকর্মী যখন বাড়ি ফিরে যেতেন, তিনি তখন ছাত্রদের পড়াতেন। দ্বিতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত বাড়তি সময় দিতেন। একটাই উদ্দেশ্য—শিক্ষার্থীদের ভালো করে গড়ে তোলা। ছুটির দিনেও বিশেষ পাঠদান দিয়ে শিক্ষার্থীদের মেধাবী করার চেষ্টা করে সময় কাটান মিতালী প্রভা দে।

মিতালী প্রভা দে এখন মহেশখালীর গোরকঘাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। তাঁর স্বামী মাখনলাল দে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক। টানা ২৮ বছর ধরে এ বিদ্যালয়েই শিক্ষকতা করছেন মিতালী।

ছোটবেলায় শিক্ষক হওয়ার যে স্বপ্ন দেখতেন মিতালী, সে স্বপ্নের পেছনে ছিল মানুষের ভালোবাসা, শ্রদ্ধা আর সম্মান পাওয়ার প্রচ্ছন্ন আকাঙ্ক্ষা। শিক্ষার্থী–অন্তঃপ্রাণ এই শিক্ষক যে তা অর্জন করছেন, সে তাঁর শিক্ষার্থী আর এলাকার মানুষের সঙ্গে কথা বললেই বোঝা যায়।

প্র ছুটির দিনে থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন