বাড়ি থেকে দূরে থাকা শিক্ষার্থী বা প্রবাসী অনেকেরই মনে পড়ে বাড়ির খাবার বা দেশি রান্নার কথা। তখন অনেকেই চেষ্টা করেন রান্না শেখার। আর এসব ক্ষেত্রে ইউটিউবকে রান্না শেখার একটা বড় মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করছেন তাঁরা। ভিনদেশি কোনো রান্না শিখতেও ইউটিউব সহজ মাধ্যম। নিরীক্ষাধর্মী রান্নায় সহায়তা করতে অন্তর্জাল বা ইউটিউবই ভরসা। ২০১৯ সনালে তরুণদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অন্তর্জাল ঘেঁটে বা ইউটিউব দেখে রান্না শেখা। কাউকে ফোন করে রেসিপি না নিয়ে, বরং ফোনে সার্চ করে বের করে ফেলছেন পছন্দের খাবারের রন্ধনপদ্ধতি।

 এখানে থাকছে ইউটিউবেরই কিছু মুখরোচক খাবারের রেসিপি। আর এই খাবারের রেসিপিগুলো এ বছর অনেকে অনুসরণ করেছেন। 

default-image

চিকেন ছোলা বাটোরা 
উপকরণ:
সারা রাত ভিজিয়ে সেদ্ধ করা কাবলি ছোলা ও রাজমা ১ কাপ, মুরগির মাংস ১ কাপ, হলুদগুঁড়া আধা চা-চামচ, আস্ত জিরা আধা চা-চামচ, গরমমসলা আধা চা-চামচ, পেঁয়াজকুচি আধা চা-চামচ, টমেটোকুচি আধা চা-চামচ, আদাবাটা ১ চা-চামচ, রসুনবাটা আধা চা-চামচ, মরিচকুচি ১ চা-চামচ, মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, ধনেগুঁড়া আধা চা-চামচ, জিরাগুঁড়া আধা চা-চামচ, চানাগুঁড়া ২ টেবিল চামচ, ধনেপাতাকুচি ১ টেবিল চামচ, তেল পরিমাণমতো, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, চিলি সস ১ চা-চামচ, টমেটো সস ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো।
প্রণালি: প্রথমে গরম তেলে লুচি ভেজে নিন। তারপর একটি প্যানে গরম তেলে জিরা ও গরমমসলা ফোড়ন দিন। পেঁয়াজকুচি ভেজে টমেটোকুচি, লবণ, মরিচগুঁড়া, ধনেগুঁড়া, জিরাগুঁড়া, আদাবাটা, রসুনবাটা দিয়ে অল্প পানিতে কষিয়ে নিন। এরপর এতে মুরগি দিয়ে কষিয়ে অল্প পানি দিয়ে ঢেকে দিন। মাংস সেদ্ধ হলে এতে মরিচকুচি, লেবুর রস, টমেটো সস, চিলি সস, চানাগুঁড়া, ধনেপাতাকুচি দিয়ে আবারও একটু পানি দিয়ে ভালোভাবে কষিয়ে নিন। সেদ্ধ কাবলি ছোলা ও রাজমা দিয়ে আবারও কষান। মাখা মাখা হয়ে গেলে নামিয়ে টক দই, আচার ও লুচির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

default-image

আলু পাপড়ি চাট
উপকরণ: খামিরের জন্য: সুজি ১ কাপ, ময়দা আধা কাপ, বেকিং সোডা আধা চা-চামচ, লবণ সিকি চা-চামচ, কুসুম গরম পানি আধা কাপ, তেল খামির মাখার জন্য ও ভাজার জন্য।
আলুর মিশ্রণের জন্য: সেদ্ধ ডাবলি আধা কাপ (লবণ দিয়ে), মাঝারি সেদ্ধ আলু ৩টি, চাট মসলা ১ চা-চামচ, টালা শুকনা মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, টালা জিরাগুঁড়া আধা চা-চামচ, টালা ধনেগুঁড়া আধা চা-চামচ, কাঁচা মরিচের কুচি ৫টা, পেঁয়াজকুচি ১টা, ধনেপাতাকুচি ২ টেবিল চামচ, লবণ আধা চা-চামচ। তেঁতুলের সসের জন্য লাগবে তেঁতুল ৫০ গ্রাম, ভাজা জিরার গুঁড়া পৌনে ১ চা-চামচ, ভাজা শুকনা মরিচের গুঁড়া সিকি চা-চামচ, লবণ ১ চা-চামচ, বিট লবণ সিকি চা-চামচ, চিনি ২ চা-চামচ। দইয়ের মিশ্রণের জন্য লাগবে টক দই ১ কাপ, টালা শুকনা মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, টালা ভাজা জিরার গুঁড়া আধা চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো। সাজানোর জন্য লাগবে ধনেপাতাকুচি পরিমাণমতো, ঝুরিভাজা পরিমাণমতো, চানাচুর পরিমাণমতো, শসা-টমেটোকুচি পরিমাণমতো।

প্রণালি: একটি বাটিতে সুজি, ময়দা, লবণ, বেকিং সোডা ও তেল নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মাখিয়ে শক্ত খামির তৈরি করুন। মাখানো হলে আধা ঘণ্টা ঢেকে রেখে দিন। আলু ভালো করে সেদ্ধ করে ছিলে আধা ভাঙা করে নিন। তাতে লবণ দিয়ে সেদ্ধ ডাবলি, চাট মসলা, কাঁচা মরিচ, লবণ, পেঁয়াজ, টালা শুকনা মরিচের গুঁড়া, টালা ধনে-জিরাগুঁড়া, ধনেপাতাকুচি দিয়ে মিশিয়ে রাখুন। তেঁতুল ১ কাপ পানিতে আধা ঘণ্টার মতো ভিজিয়ে রেখে তেঁতুলের ক্বাথ বের করে নিন। তারপর তাতে সসের সব উপকরণ দিয়ে ভালোভাবে ফেটে নিন। এবার মেখে রাখা খামির থেকে ৬টা বল বানিয়ে এক একটি বল থেকে রুটি বেলে নিয়ে এর থেকে নিমকির আকারে কেটে নিন। গরম তেলে নিমকিগুলো বাদামি করে ভেজে তুলুন। সবগুলো ভাজা হয়ে গেলে ঠান্ডা করে এর সঙ্গে ডাবলি-আলুর মেখে রাখা পুর দিয়ে তেঁতুলের সস, দইয়ের মিশ্রণ, ধনেপাতাকুচি, শসা-টমেটোকুচি ও ঝুরি-চানাচুরভাজা ছড়িয়ে দিয়ে পরিবেশন করুন।

default-image

অরিগ্যানো চিকেন 
উপকরণ:
মুরগির বুকের মাংস ১ কাপ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, টমেটো কেচআপ ১ টেবিল চামচ, বাদামি চিনি ১ চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, আদাবাটা ১ চা-চামচ, রসুনবাটা ১ চা-চামচ, শুকনা মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, পাপরিকা আধা চা-চামচ, সরিষা আধা চা-চামচ, অরিগ্যানো আধা চা-চামচ, তেল পরিমাণমতো, লবণ স্বাদমতো।
প্রণালি: প্রথমে একটি পাত্রে মুরগির বুকের মাংস একটু পাতলা করে কেটে নিয়ে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে পাতলা করে তাতে লেবুর রস, গোলমরিচের গুঁড়া, আদাবাটা, রসুনবাটা, লবণ, শুকনা মরিচের গুঁড়া, সরিষা, অরিগ্যানো, পাপরিকাসহ সব উপকরণ দিয়ে মেখে রেখে দিন। এবার মেরিনেট করা মাংস গরম তেলে শ্যালো ফ্রাই করে ভেজে নিন। ভাজা হয়ে এলে হালকা ভাজা সবজিসহ গরম-গরম পরিবেশন করুন।

default-image

প্যান স্পেগেটি উইথ স্প্যানিশ গার্লিক বিফ
উপকরণ:
স্পেগেটির জন্য—রসুনকুচি সিকি চা-চামচ, টমেটোকুচি আধা টেবিল চামচ, সুইট কর্ন ১ টেবিল চামচ, অরিগ্যানো আধা চা-চামচ, ইতালিয়ান সিজনিং আধা চা-চামচ, পারমিজান পনিরকুচি কিছুটা, স্পেগেটি ১৬০ গ্রাম, লেবুর রস ১ চা-চামচ, শুকনো বেসিল আধা চা-চামচ, সাদা তেল দেড় চামচ।
স্প্যানিশ গার্লিক বিফের জন্য—সেদ্ধ গরুর কিমা ১৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ গোল করে কাটা ১টা, রসুনকুচি ৪ কোয়া, চিলি ফ্লেক্স আধা চা-চামচ, লেবুর রস ২ চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, পার্সলে কুচি ১ চা-চামচ, লবণ স্বাদমতো, মাখন ১ চা-চামচ, সাদা তেল ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি: একটি সসপ্যানে পানি গরম করে তাতে অল্প লবণ ও তেল দিয়ে স্পেগেটি সেদ্ধ করে নিন। স্পেগেটি সেদ্ধ হলে ভালো করে পানি ঝরান। এবার প্যানে তেল গরম করে তাতে রসুনকুচি, টমেটোকুচি, সুইট কর্ন দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে তাতে সেদ্ধ করে রাখা স্পেগেটি দিয়ে দিয়ে নাড়ুন। এবার স্পেগেটিতে একে একে অরিগ্যানো, শুকনো বেসিল, ইতালিয়ান সিজনিং, লবণ দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এরপর একটি প্লেটে নামিয়ে তাতে লেবুর রস ছড়িয়ে ওপর দিয়ে কুচানো পনির দিয়ে দিলেই তৈরি হয়ে গেল প্যান স্পেগেটি। অন্য দিকে একটি বাটিতে সেদ্ধ কিমা নিয়ে তাতে আদাবাটা, রসুনবাটা, পেঁয়াজ গোল করে কাটা, লেবুর রস, গোলমরিচের গুঁড়া, চিলি ফ্লেক্স, পার্সলেকুচি দিয়ে মেখে নিন। এবার একটি প্যানে সাদা তেল গরম করে তাতে মেখে রাখা কিমা দিয়ে ভালো করে রান্না করে মাখন দিয়ে নামিয়ে নিয়ে স্প্যাগেটির সঙ্গে পরিবেশন করুন।

default-image

সুশি 
উপকরণ:
বিন্নি চাল ১ কাপ, চিনি আধা চা-চামচ, লবণ এক চিমটি, রাইস ভিনেগার ২ টেবিল চামচ, সয়া সস ২ টেবিল চামচ, লম্বা করে কাটা গাজর সিকি কাপ, লম্বা করে কাটা লাল, হলুদ ক্যাপসিকাম আধা কাপ, লম্বা করে কাটা অ্যাভোকাডো আধা কাপ, রোস্ট করা কালো তিল ১ চা-চামচ, নরি সিট ২টা, তিলের তেল সামান্য।

প্রণালি: প্রথমে একটা ম্যাট নিয়ে সেটাকে জিপলগ ব্যাগ দিয়ে মুড়ে বানাতে হবে সুশি ম্যাট। বিন্নি চালের ভাত বানিয়ে নিয়ে এবার সব উপকরণ সাজিয়ে নিতে হবে। সুশি ম্যাটের ওপর একটু তিলের তেল লাগিয়ে তার ওপর একটা নরি সিট বিছিয়ে নিতে হবে। এবার একটা বাটিতে ভাতের মধ্যে রাইস ভিনেগার, চিনি আর লবণ দিয়ে হালকা হাতে ভাত চটকে এই নরি সিটের ওপর বিছিয়ে দিতে হবে। এই সময় হাতে একটু পানি লাগিয়ে নিতে হবে।এখন এই ভাতের ওপর দিতে হবে রোস্ট করা কালো তিল। ভাতের ওপর এক পাশ থেকে সমস্ত কাটা সবজি একে একে সাজিয়ে নিতে হবে। এরপর খুব সাবধানে একপাশ থেকে ধীরে ধীরে চেপে চেপে এই ম্যাটটাকে রোল করতে হবে। এরপর ম্যাটটা খুলে সুশি রোলটাকে ম্যাটের থেকে আলাদা করে খুব ধারালো ছুরি দিয়ে একে একে পিস করে কেটে নিন। একটা লম্বা পাত্রে এক এক করে সুশিগুলোকে সাজিয়ে ওয়াসাবি, পিকেল জিঞ্জার এবং সয়া সসের সঙ্গে পরিবেশন করুন। 

বিজ্ঞাপন
নকশা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন