বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ক্রোকারিতে আগ্রহ

default-image

ঘরের ভেতর বেশির ভাগ সময় কাটানো হয়েছে। পরিবারের সবাই একসঙ্গে বসে খাওয়া হয়েছে বেশি। এ কারণে অনেকেই খাবার টেবিল সাজিয়েছেন পরিপাটি করে। পরিবেশনের বাসন থেকে শুরু করে রান্নার পাতিল কিনেছেন অনেকেই। অনলাইনে কিছু কিছু সাইটে নতুন একটি পণ্য আসার সঙ্গে সঙ্গে বিক্রি হয়ে গেছে।

করোনায় অন্দর

default-image

সবুজের সংস্পর্শে থাকতে ঘরে রাখা হয়েছে বেশি গাছ। এ ছাড়া ঘরের মধ্যে হাঁটাহাঁটি বা ব্যায়াম করার ব্যবস্থাও করা হয়েছিল। ঘর পরিষ্কার রাখতে অন্দরে ছিমছাম ভাব আনা হয়েছিল। আবার দেয়ালে টেরাকোটা বা রং করার প্রবণতা দেখা গেছে। অনেকেই আবার ঘর গুছিয়ে রাখতে দেশীয় উপকরণের তৈরি ঝুড়ি ব্যবহার করেছেন।

default-image

পর্যাপ্ত আলো-বাতাসের জন্য ঘরের জানালা ও বারান্দার দরজা খোলা রাখার প্রবণতা ছিল বেশি। অন্দরসাজে অফিস করার জায়গাটিও যুক্ত করা হয়েছিল। কাজের ফাঁকে বিশ্রামের জন্য বারান্দায় দোল খাওয়া ছোট চেয়ার বা মেঝেতে বসার ব্যবস্থা রেখেছেন অনেকেই।

নকশা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন