default-image

প্রতিটি বাড়িরই থাকে নিজস্ব ভাষা। আলাদা প্রকাশভঙ্গি। অন্দরের সাজেই ফুটে ওঠে বাড়ির বাসিন্দাদের রুচি। বাড়ি ছোট কিংবা বড়—গোছানো থাকলে দেখতে লাগে ছিমছাম। তবে বাড়ির আয়তন অনুযায়ী আসবাব বেছে নিলে ভালো। নীড় ছোট হলেও ক্ষতি নেই, যদি ভেতরের অংশে রাখা যায় খোলামেলা ভাব।

পেশায় শিক্ষক, মুনিয়া আরেফিনের বাড়িটি ১৬৫০ বর্গফুটের। এক মেয়ে নিয়ে তিনজনের সংসার। তিনটি শোবার ঘরের একটি তিনি শুধু ক্লজেট ঘর হিসেবে রেখেছেন। এ কারণে বাড়ির বাকি দুটি শোবার ঘরের ওপরও চাপ কম পড়ে। খুব বেশি আসবাব রাখেননি। কোনাগুলোকে সাজিয়েছেন ছোট ছোট আসবাব, শোপিস আর গাছ দিয়ে। হালকা রং আর নকশা বেছে নিয়েছেন প্রতিটি ঘরের জন্যই। আসবাব বা শোপিস দামি হলেই যে সুন্দর হবে, বিষয়টি তা নয়। বরং সাজানোর ওপরও নির্ভর করে অনেক কিছু। ফুলের নকশা পছন্দ করেন তিনি।

বিজ্ঞাপন
default-image
default-image
বিজ্ঞাপন
default-image
বিজ্ঞাপন
default-image
বিজ্ঞাপন
default-image
বিজ্ঞাপন
default-image
default-image
বিজ্ঞাপন
default-image
মন্তব্য পড়ুন 0